Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

হঠাৎ পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করায় অনুতপ্ত ভারত: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ২:৫৮ পিএম

আগাম কোনো ঘোষণা না দিয়ে হঠাৎ পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করায় ভারত অনুতপ্ত বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি বলেন, পেঁয়াজ রপ্তানি হঠাৎ বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর ভারতের সঙ্গে আমরা যোগাযোগ করেছি। তবে, ভারত আগাম ঘোষণা না দিয়ে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করায় দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অনুতপ্ত বলে আমাদের জানিয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি এসব কথা বলেন। চলতি বছর ১৪ সেপ্টেম্বর ভারত থেকে হঠাৎ করেই দেশে পেঁয়াজ আসা বন্ধ হয়ে যায়। তবে, ওই দিন রাতে ভারতের বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের বৈদেশিক বাণিজ্য বিভাগের মহাপরিচালক অমিত যাদব স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, ১৯৯২ সালের ভারতের বৈদেশিক বাণিজ্য আইনের তিন ধারা অনুযায়ী পরবর্তী আদেশ না দেওয়া পর্যন্ত সব ধরনের পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ থাকবে। তবে, পেঁয়াজের কুচি, পাউডার ও অন্যকোনো অবস্থায় পেঁয়াজ রপ্তানি অব্যাহত থাকবে। ভারতের বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপন জারির পর বিষয়টি পরিষ্কার হয়ে যায়।

এর আগে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম জানিয়েছিলেন, ভারত থেকে পেঁয়াজ রপ্তানির নোটিশ আমাদের নজরে আসার সঙ্গে সঙ্গেই আমাদের দিল্লি, মিশন, দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। কারণ আমাদের মধ্যে অলিখিত কথাটি ছিল যে, ভারত অব্যাহতভাবে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি করবে। তবে, ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় যদি কোনো পরিবর্তন আনে, আগে থেকে আমাদের জানিয়ে দেবে। এই ধরনের বোঝাপড়ার মধ্যে আছে, এটা বন্ধু প্রতিম রাষ্ট্র হিসেবে। আমরা তাদের খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে এই সিদ্ধান্তটি প্রত্যাহারের জন্য অনুরোধ জানিয়েছি। প্রত্যাশা করছি, এটার একটা ভালো ফলাফল পাবো।



 

Show all comments
  • মোঃ নূরুল আমিন চৌধুরী ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:০৩ পিএম says : 0
    ”"বন্ধু প্রতিম রাষ্ট্র” এর সহিত “স্বামী-স্ত্রীর” সম্পর্ক বলে স্বীকৃতির প্রতিদান “আগাম না জানিয়ে” চন্ডালনীতির আড়ালে ”হঠাৎ পেঁয়াজ রপ্তানী বন্ধ করে দেয়া” বাংলাদেশের সহিত এ আচরন বাংলাদেশীরাই নীতিগতভাবে ঘৃণা করতে বাধ‌্য। ভারসাম‌্যহীন সম্পর্ক দিয়ে বন্ধুত্ব প্রমাণিত হয়না।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Shah Alam Khan ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৯:৩১ পিএম says : 0
    বাংলাদেশে কখনও ভারতের বন্ধু ছিলনা। বাংলাদেশ হচ্ছে ভারতের আশ্রিত একটা স্বাধীন দেশ কারণ ভারত মনে করে তারা বাংলাদেশকে স্বাধীন করেছে কিন্তু দেশকে দয়া করে দখলে না নিয়ে আশ্রিত হিসাবে স্বাধীনতা দিয়েছে শর্ত স্বাপেক্ষে। কাজেই আমরা সাধারন মানুষেরা যত যাই বলিনা কেন ভারতের কিছুই যায় আসেনা। তারা জানে আমরা গজরাতে পারবো কিন্তু ভারতের বিপক্ষে কিছুই করতে পারবোনা। এখন একমাত্র আল্লহাই পারেন আমাদের দেশকে রক্ষা করতে। আর সেজন্যে দেশের নতুন যুব সমাজ ও ছাত্র সমাজকে এগিয়ে আসতে হবে এবং মহান আল্লাহ্‌র কাছে আমরা যেমন ’৭১ পাকিস্তানিদের কাছ থেকে স্বাধীনতা চেয়েছিলাম সেই একই ভাবে নতুন প্রজন্মকে আল্লাহ্‌র কাছে ভারতের হাত থেকে রাহাই পাবার জন্যে আবেদন নিবেদন করতে হবে। সেই আবেদন নিবেদন সঠিক ভাবে আল্লাহ্‌র দরবারে উত্তাপন হবার পরই আল্লাহ্‌ চাইলে আমাদের দেশকে ভারতের নিয়ন্ত্রণ থেকে মুক্ত করতে পারেন। আমিন
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ