Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

দেবিদ্বারে ভাতিজী ধর্ষণের অভিযোগে চাচা কারাগারে

দেবিদ্বার (কুমিল্লা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৮:০১ পিএম

কুমিল্লার দেবিদ্বারে ভাতিজী ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষক চাচা ফয়েজ উল্লাহ (২৩) নামে এক কলেজ ছাত্রকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। উপজেলার ধামতী ইউনিয়নের তেবারিয়া গ্রামের আব্দুল আলীমের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, ভিক্টিমের পিতা প্রবাসী। সে স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণিতে লেখা পড়া করে। চলতি বছরের ২২ মে দুপুর অনুমান ১২টায় প্রতিবেশী চাচা সম্পর্কের ফয়েজ উল্লাহ ওই ভাতিজীকে ফুসলিয়ে তার নিজ ঘরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরদিন ২৩ মে বেলা ১টায় ওই একই ঘরে আবারো তাকে ধর্ষণ করা হয়। ওই সময় চাচা তার মোবাইল ফোনে ধর্ষণের ছবি ও ভিডিও ধারন করে যা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার না করলেও ধর্ষক তার একাধিক বন্ধুর মোবাইল মেসেঞ্জারে পাঠায়। পরবর্তীতে ওই ভিডিও প্রকাশ হলে ভিক্টিমের নানী ভিডিওসহ দেবিদ্বার থানা পুলিশের স্বরনাপন্ন হয়।
এ ঘটনায় বুধবার রাতে ভিক্টিমের চাচা বাদী হয়ে তেবারিয়া গ্রামের আব্দুল আলীমের পুত্র দুয়ারীয়া এ,জি, মডেল স্কুল এন্ড কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ফয়েজ উল্লাহকে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। পুলিশ রাতেই নিজ বাড়ি থেকে আসামীকে গ্রেফতার করে।

এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আব্দুস সালাম বলেন, মামলার আসামী ও ভিক্টিমকে আদালতে আনা হয়েছে। ম্যাজিষ্ট্রেটের নিকট আসামীর ১৬৪ ধারায় জবানবন্ধী রেকর্ড ও ভিক্টিমের ২১ ধারায় জবানবন্ধী রেকর্ড করা হয়েছে। পরে ভিক্টিমকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষণ

২৩ অক্টোবর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন