Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

পাকিস্তানের নতুন মানচিত্রকে সমর্থন রাশিয়ার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:১৮ এএম

পাকিস্তানের নতুন মানচিত্রের ব্যাপারে ইসলামাবাদের অবস্থানকে সমর্থন করে রাশিয়া। প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা ড. মুইদ ইউসুফ বুধবার এ কথা বলেছেন। তিনি বলেন, জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাব ও আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী এই মানচিত্র তৈরি করা হয়েছে। ইসলামাবাদে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, মঙ্গলবার সাংহাই সহযোগিতা সংস্থার (এসসিও) জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টাদের বৈঠক পাকিস্তানের নতুন রাজনৈতিক মানচিত্র প্রদর্শনের ব্যাপারে ভারতের আপত্তি প্রত্যাখ্যান করেছে। ড. ইউসুফ বলেন, পাকিস্তান এসসিও বৈঠকে গর্বের সঙ্গে রাজনৈতিক মানচিত্র প্রদর্শন করেছে। সদস্য দেশগুলো ভারতের আপত্তিকে প্রত্যাখ্যান করে। এমনকি রাশিয়াও এই ইস্যুতে পাকিস্তানের পক্ষে ছিলো। তিনি জানান, স্বাগতিক দেশ রাশিয়া তিন দিন আগে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোকে তাদের কারিগরি দিক পরীক্ষা করে নিতে বলে। ১১ সেপ্টেম্বর এই কারিগরি পরীক্ষার সময়, পাকিস্তানের মিটিং রুমের দেয়ালে নতুন মানচিত্র আঁকা থাকা নিয়ে ভারত আপত্তি জানায়। উপদেষ্টা বলেন যে ভারত রাশিয়ার কাছে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ করে। পাকিস্তানের মানচিত্রে ভারতের অবৈধ দখল করা জম্মু-কাশ্মীর দেখানোর কারণে প্রতিবাদ জানায় তারা। এরপর রাশিয়া পাকিস্তানকে জানায় যে ভারত চায় ভার্চুয়াল সেশনে পাকিস্তানের পতাকাটি যেন না দেখানো হয়। এই অভিযোগের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় রাশিয়াকে বলে, গত ৫ আগস্ট উদ্বোধন করা এই মানচিত্রে আমাদের বৈধ অধিকার প্রদর্শিত হয়েছে এবং নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাবগুলো মেনে এটা তৈরি। এই মানচিত্র সরিয়ে নেয়ার প্রশ্নই ওঠে না। ড. ইউসুফ বলেন, পাকিস্তান সুষ্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছে যে কাশ্মীর কখনোই ভারতের অংশ ছিলো না এবং কখনো হবেও না। তিনি বরেন, আমরা এসসিও সদস্যদের মনে করিয়ে দিয়েছি, ভারত জাতিসংঘ সনদ লঙ্ঘন করে অবৈধভাবে অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীরের মর্যাদা পরিবর্তনের চেষ্টা করছে। বৈঠক থেকে ভারতীয় জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের ওয়াক আউটের সমালোচনা করে ড. ইউসুফ বলেন, এসসিও পাকিস্তানের মানচিত্র নিয়ে আপত্তি উত্থাপনের সঠিক ফোরম নয়। কারণ এই ফোরাম বহুপক্ষীয় ইস্যু নিয়ে কাজ করে, কোন দ্বিপাক্ষিক ইস্যু নিয়ে নয়। এই ফোরাম হলো সহযোগিতা ও জড়িত হওয়ার। এপিপি, এসএএম।

 

 



 

Show all comments
  • প্রজাপতির জীবন ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:২৮ এএম says : 0
    পুতিন রক্তের খেলা বন্ধ করে রাজনীতির খেলা খেলছে!! পুরো পৃথিবী ২ ভাগে বিভক্তহওয়ার পথে! একপক্ষ চীন, রাশিয়া, পাকিস্তান, তুরস্ক, ইরান,মালয়েশিয়া অন্যপক্ষ ইউরোপ, আমেরিকা, ইজরায়েল সহ ভারত!অগ্রগতি, উন্নতি ও শক্তির বিচারে রাশিয়া পক্ষ বেশ অগ্রসর আর সেই শক্তির পেছনে অন্যতম কারন ২ মাথামোটা ট্রাম্প আর মোদী!! ট্রাম্প পাগলামি করে নিজের শক্তি সংকোচিত করেছে আর মোদী উগ্র হিন্দুত্ববাদী উসকে দিয়ে প্রতিবেশী দেশগুলোর শত্রুতে পরিনত হয়ে একঘরে হয়ে গেছে!! এই মাথামোটা মোদীর কারণে ইন্ডিয়া ভাঙ্গার সম্ভাবনা প্রবল!!
    Total Reply(0) Reply
  • Md. Nazrul ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:২৮ এএম says : 0
    নেপাল পায় ভূমি, পাকিস্তান পায় ভূমি, চীন পায়, ভূমি থেকে সব কিছুই।।।।।। বাংলাদেশ পায় চোখ রাঙানি পায় লাশ উপহার--
    Total Reply(0) Reply
  • Sarwar tanbir Sohel ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:২৯ এএম says : 0
    শুধু বাংলাদেশ ছাড়া বাকি সব দেশ পাকিস্তানের মানচিত্র সমর্থন করবে
    Total Reply(0) Reply
  • Hamid Hamid ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:২৯ এএম says : 0
    ভবিষ্যতে রাশিয়া বিশ্ব চালাইবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Masud Kabir ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:৩০ এএম says : 0
    পাকিস্তানের অনেক জায়গাই ভারতের দখলে আছে । রাশিয়া সঠিক কাজটাই করেছে,বাংলাদেশও সাহস পেল ভারতের আগ্রাসন থেকে কিছুটা মুক্তির !
    Total Reply(0) Reply
  • Monir Howlader ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:৩০ এএম says : 0
    ভারত যে নিজের স্বার্থ ছাড়া কিছু বোঝেনা সেটা রাশিয়া বুঝে গেছে। এতে বোঝা গেলো পৃথিবী দুইটা শক্তিশালি মেরুতে পরিনত হবে ।
    Total Reply(0) Reply
  • Najmul Hasan ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:৩০ এএম says : 0
    খেলা হবে.... খেলা হব্বে....... আমাদের সরকার ভারতের বন্ধু হলেও এ দেশের ১৮ কোটি মানুষের চরম শত্রু ভারত।।। যা পাকিস্তান বুঝতে পেরেছে তাই আমাদের হয়ে খেলবে পাকিস্তান.... ইনশাআল্লাহ জয় আমাদেরই হবে....
    Total Reply(0) Reply
  • Md Rafiqul Islam ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:৩১ এএম says : 0
    পাকিস্তানের জন্য এক বিরাট বিজয়।রাশিয়ার সমর্থন পাকিস্তান কে তাদের পরবর্তী পদক্ষেপে অনুপ্রেরনা যোগাবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Akter Hussain ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:৩১ এএম says : 0
    ইন্ডিয়া চাইছিল সকল মুসলিমদের দেশ থেকে বের করে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের রাখতে কিন্তু এখন দ্যাহি পুরো দেশটাকে নিয়েই চায়না, পাকিস্তান, নেপাল কামরা কামরী শুরু কইচ্ছে!! হইলো টা কি?
    Total Reply(0) Reply
  • Murshida Alamin ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:৪৭ পিএম says : 0
    ধন্যবাদ পুতিন সাব
    Total Reply(0) Reply
  • Tareq Anam ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:৪৭ পিএম says : 1
    এটা ভারত পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ ব্যপার,,৷ তাই আমরা কোন মতামতে নেই। তবে রক্তের আত্মীয় স্বজনদের জন্যে কষ্ট হচ্ছে,, একদিকে নেপাল অনেক এলাকার দখল নেওয়ার চেষ্টায়,চীন অনেক এলাকা দখলে নিয়ে নিয়েছেন,, তারউপরে আবার পাকিস্তান? এত ঠেলা সামলাবে কি করে?
    Total Reply(0) Reply
  • Amir Hossain ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৭:৪৬ পিএম says : 0
    প্রজাপতির জীবন নামে প্রথম লেখকের মন্তব্য আমার কাছে সব থেকে সঠিক বলে মনে হয়েছে । মদি ভারতকে বন্ধু হীন করে চলেছে এবং ট্রাম্প আমেরিকার বিশ্ব নেতৃত্বের আসন হাতছাড়া করতে চলেছে ।
    Total Reply(0) Reply
  • Md MazharulIslam ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৯:২৩ পিএম says : 0
    রাশিয়াসঠিককাজটাইকরেছে
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Ali Bhuiyan ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৯:৫০ পিএম says : 0
    বর্তমান মোদির ভারত একটি চরমপন্থী হিন্দু মৌলবাদের আদর্শে পরিচালিত ভূখণ্ড। তারা মুসলমানদের বিরুদ্ধে একের পর এক নির্যাতনের রাস্তা বের করছে। প্রতিবেশী কোনো দেশ তাদেরকে ভালো চোখে দেখছে না। পরম আত্মার বন্ধু বাংলাদেশ ও চায়নার দিকে ঝুকে পড়ছে। কারণ মোদি তার হিন্দুত্ববাদকে প্রতিষ্ঠা করতে গিয়ে যে চরম মানবতা বিরোধী অপরাধ করছে তাহা কেহই ভালোভাবে নিচ্ছে না।
    Total Reply(0) Reply
  • Mr.sarkar ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:১০ এএম says : 2
    Sobar comments pore ei tai bujlam , a khane sobai j Chinar leg chata choto vai hote chaiche khub vlo kore bujte parchi ...
    Total Reply(0) Reply
  • Md. Suruj qi ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:৪৪ এএম says : 0
    সত্যি বলতে কী, প্রত্যেক দেশই নিজস্ব স্বার্থ নিয়ে ব্যস্ত। জাতিগত নিধনযজ্ঞের কোন বিচার নেই। এটা থাকলে সব জাতি দুনিয়ায় শান্তিতে থাকতো। আমরা স্বার্থ কেন্দ্রিক বলেই স্বজাতির হাহাকারেও কাঁদি না পরজাতির দূ:খেও ব্যথিত হই না। তা নাহলে মমোদী ও অন্যান্যদের জায়গা হতো শান্তি কারাগারে।
    Total Reply(0) Reply
  • Tasin ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:৪৯ এএম says : 0
    Why not Bangladesh change the map include Kolkata and asham???
    Total Reply(0) Reply
  • Mustafizur Rahman Ansari ২১ অক্টোবর, ২০২০, ২:০৭ এএম says : 0
    Wait and see
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রাশিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ