Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

আমেরিকা বিশেষ মিত্রের মর্যাদা দিচ্ছে কাতারকে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:১৩ এএম

মধ্যপ্রাচ্যের ছোট্ট একটি আরব রাষ্ট্র কাতার। আর এই কাতারই এখন বিশ্বের অন্যতম একটি রাজনৈতিক মঞ্চ হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে তালিবান-আফগান সরকারের মধ্যে শান্তি আলোচনার উদ্যোগ এই কাতারই নিয়েছে। তালেবানদের জন্য দোহায় অফিসও খুলে দিয়েছে। আবার এই কাতারের বিরুদ্ধে সৌদি আরব, মিশর, বাহরাইন ও আমিরাত অবরোধ দিয়ে রেখেছে দীর্ঘ দিন। তবে সেই অবরোধ ব্যর্থ করে দিয়েছে তুরস্ক আর ইরান। অতি শিগগিরই কাতারকে নন-ন্যাটো মিত্র হিসেবে মর্যাদা দিতে যাচ্ছে আমেরিকা।খবর আল-জাজিরা’র।

নন-ন্যাটোর মিত্র হিসেবে ওয়াশিংটনের সঙ্গে প্রতিরক্ষা, নিরাপত্তা ও সুরক্ষা বিষয়ক সহযোগিতায় পারস্পরিক সম্পর্ক গড়ে উঠবে দোহার।

একটি কনফারেন্স কলে উপসাগরীয় অঞ্চলের মার্কিন ডেপুটি অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি টিমোথি লেন্ডারকিং বলেন, ‘কাতারকে গুরুত্বপূর্ণ নন-ন্যাটো মিত্র হিসেবে আমরা আশা করছি। বিষয়টি নিয়ে আমরা এগোচ্ছি।’
মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এবং কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন আব্দুল রহমান আল থানিসহ দুই দেশের গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তারা এ সপ্তাহের শুরুতে ওয়াশিংটন ডিসিতে মিলিত হতে যাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

সামরিক ক্ষেত্রে নন-ন্যাটো মিত্র দেশগুলো (এমএনএনএ) যুক্তরাষ্ট্র থেকে যেসব সুবিধা পায় কাতারও সেটির অন্তর্ভুক্ত হবে। যার মধ্যে আছে মার্কিন সামরিক বাহিনীর অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও সরঞ্জাম সহায়তা, দ্রুত বাণিজ্য এবং যৌথ প্রশিক্ষণে অগ্রাধিকার।

২০১৭ সাল থেকে সৌদি আরব, আরব আমিরাত, বাহরাইন এবং মিসরের সঙ্গে বিরোধে জড়িয়ে পড়া কাতারেই মধ্যপ্রাচ্যের সবচেয়ে বড় মার্কিন ঘাঁটি।

এর মধ্যে সৌদি আরব ছাড়া বাকি সব দেশ ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার চুক্তি সম্পন্ন করেছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আশাবাদী, শিগগিরই সৌদি আরবও একই পথে হাঁটবে।

তবে কাতার ঘোষণা দেয়, পূর্ব জেরুজালেমকে রাজধানী না করে স্বাধীন ফিলিস্তিনি রাষ্ট্র না হলেও ইসরায়েলের সঙ্গে কোনও ধরনের চুক্তিতে যাবে না দোহা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাষ্ট্র


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ