Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

সংসদে বসে নীল ছবি দেখে বিপদে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

প্রায় দশ মিনিট ধরে তিনি মনোযোগ সহকারে ছবিগুলি দেখছিলেন। মুখের মাস্ক বাধা হচ্ছিল। তাই তিনি সেটাও খুলে ফেললেন। তার পর বিনা বাধায় মনোযোগ সহকারে ডুব দিলেন নীল ছবিগুলিতে। প্রতিটি মুহ‚র্ত ধরা পড়ল সিসিটিভি-তে। আর সেই ফুটেজ ভাইরাল হল মুহ‚র্তে। এই পর্যন্ত পড়ে অস্বাভাবিক কিছু আছে বলে মনে হচ্ছে না তাই তো! কে, কেমন ছবি দেখবেন সেটা তার একান্ত ব্যক্তিগত ব্যাপার। ঠিকই। তবে একজন সাংসদ কি সংসদে বসে মনোযোগ সহকারে এমন ছবি দেখতে পারেন! তাও আবার সংসদে যখন বাজেট পেশ করা হচ্ছে! এই নিয়েই জোর সওয়াল উঠেছে। থাইল্যান্ডের সাংসদ রোনথেপ অনুওয়াতের এমন কান্ড নিয়ে হইহই কান্ড। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম তাঁকে একের পর এক প্রশ্নে জর্জরিত করেছে। সাংসদ অবশ্য আত্মপক্ষ সমর্থনে যুক্তি দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, কোনও এক মহিলা তাঁকে হোয়াটস অ্যাপে ওই ছবিগুলি পাঠিয়েছিলেন। সেই মহিলা তার কাছে সাহায্য প্রার্থনা করেছিলেন। আর তাই রোনথেপ মোবাইলে ঝুঁকে পড়ে কাছ থেকে ছবিগুলি দেখছিলেন। আসলে তিনি ছবিটিতে থাকা আশেপাশের পরিবেশ যাচাই করে দেখতে চাইছিলেন। কারণ তার মনে হচ্ছিল, দুষ্কৃতিরা বন্দুকের নলের সামনে রেখে ওই মহিলাকে ওরকম ছবি তুলতে বাধ্য করেছিল। প্রায় দশ মিনিট ধরে পর্যবেক্ষণের পর তিনি বুঝতে পারেন যে সেরকম কিছুই ঘটেনি। সেই মহিলা আসলে তার কাছে আর্থিক সাহায্য চাইছিলেন। তবে তার এমন যুক্তিতে চিড়ে ভেজেনি। সংবাদমাধ্যম তাঁকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছে যেন! রোনথেপ অবশ্য পরে বলেছেন, সাংসদ হলেও তার ব্যক্তিগত জীবন রয়েছে। সেখানে হস্তক্ষেপ করাটা শোভনীয় আচরণ নয়।
সূত্র : জি নিউজ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ