Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৬ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬, ২২ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

ব্রাদার্স-আরামবাগ ম্যাচে কেউ হারেনি

প্রকাশের সময় : ১০ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

শামসুল আলম খান, ময়মনসিংহ থেকে : রোয়া ফুটবলের মর্যাদাপুর্ণ আসর জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে ব্রাদার্স ইউনিয়ন ক্লাব ও আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের মধ্যকার ম্যাচে কেউ হারেনি। গতকাল ময়মনসিংহের রফিক উদ্দিন ভুঁইয়া স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এ ম্যাচটি ২-২ গোলে অমিমাংসিতভাবে শেষ হয়। ফলে উভয় দল একটি করে পয়েন্ট পায়। এই ড্র’তে চার ম্যাচ শেষে আরামবাগ সংগ্রহ ৫ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার সপ্তমস্থানে জায়গা পেলো। সমান ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে ব্রাদার্স মোহামেডানকে পেছনে ফেলে দশমস্থানে উঠে আসলো।
কাল ম্যাচের শুরুতেই এগিয়ে যায় ব্রাদার্স। ৬ মিনিটে কর্ণার থেকে বক্সে বল পেয়ে হেড করেন রনি। তার হেডের বল রাসেলের পায়ে গেলে তিনি প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডারদের কাটিয়ে সাইড ভলিতে গোল করে ব্রাদার্সকে এগিয়ে নেন (১-০)। চার মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ করার সুযোগ পেয়েও তা কাজে লাগাতে পারেননি ব্রাদার্সের এনখোচা কিংসলে। তার শট দক্ষতার সঙ্গে বল আটকে দেন আরামবাগ গোলরক্ষক অধিনায়ক মিতুল হাসান। ধীরে ধীরে খেলা নিজেদের আয়ত্বে আনে আরামবাগ। যার ফলে ম্যাচের ২৫ মিনিটে সমতায় ফেরে তারা। এসময় বামপ্রান্ত থেকে জাফর ইকবালের ক্রস থেকে বল পেয়ে গোল করেন কেস্টার এ্যাকন (১-১)। প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে (৪৫+১) ব্যবধান বাড়ায় আরামবাগ। গোল করেন জাফর ইকবাল। তিনি ব্রাদার্সের গোলরক্ষক উত্তম বড়–য়াকে বোকা বানিয়ে চমৎকার শটে দলকে সমতায় ফেরান (২-১)। প্রথামার্ধ এগিয়ে থেকেই বিশ্রামে গেলেও দ্বিতীয়ার্ধে লিড ধরে রাখতে পারেনি আরামবাগ। ৭০ মিনিটে রনির পাসে বল পেয়ে দুর্দান্ত শটে আরামবাগের জাল কাঁপান মান্নাফ রাব্বি (২-২)। এরপর দু’দলই বেশ কিছু সৃষ্টি করলেও আর গোলের দেখা পায়নি। ফলে অমিমাংসিতভাবেই শেষ হয় ম্যাচ। আজ বিকাল ৪টায় একই ভেন্যুতে রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটির মুখোমুখি হবে উত্তর বারিধারা ক্লাব।

ব্রাদার্স-আরামবাগ ম্যাচে কেউ হারেনি
শামসুল আলম খান, ময়মনসিংহ থেকে : রোয়া ফুটবলের মর্যাদাপুর্ণ আসর জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে ব্রাদার্স ইউনিয়ন ক্লাব ও আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের মধ্যকার ম্যাচে কেউ হারেনি। গতকাল ময়মনসিংহের রফিক উদ্দিন ভুঁইয়া স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এ ম্যাচটি ২-২ গোলে অমিমাংসিতভাবে শেষ হয়। ফলে উভয় দল একটি করে পয়েন্ট পায়। এই ড্র’তে চার ম্যাচ শেষে আরামবাগ সংগ্রহ ৫ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার সপ্তমস্থানে জায়গা পেলো। সমান ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে ব্রাদার্স মোহামেডানকে পেছনে ফেলে দশমস্থানে উঠে আসলো।
কাল ম্যাচের শুরুতেই এগিয়ে যায় ব্রাদার্স। ৬ মিনিটে কর্ণার থেকে বক্সে বল পেয়ে হেড করেন রনি। তার হেডের বল রাসেলের পায়ে গেলে তিনি প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডারদের কাটিয়ে সাইড ভলিতে গোল করে ব্রাদার্সকে এগিয়ে নেন (১-০)। চার মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ করার সুযোগ পেয়েও তা কাজে লাগাতে পারেননি ব্রাদার্সের এনখোচা কিংসলে। তার শট দক্ষতার সঙ্গে বল আটকে দেন আরামবাগ গোলরক্ষক অধিনায়ক মিতুল হাসান। ধীরে ধীরে খেলা নিজেদের আয়ত্বে আনে আরামবাগ। যার ফলে ম্যাচের ২৫ মিনিটে সমতায় ফেরে তারা। এসময় বামপ্রান্ত থেকে জাফর ইকবালের ক্রস থেকে বল পেয়ে গোল করেন কেস্টার এ্যাকন (১-১)। প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে (৪৫+১) ব্যবধান বাড়ায় আরামবাগ। গোল করেন জাফর ইকবাল। তিনি ব্রাদার্সের গোলরক্ষক উত্তম বড়–য়াকে বোকা বানিয়ে চমৎকার শটে দলকে সমতায় ফেরান (২-১)। প্রথামার্ধ এগিয়ে থেকেই বিশ্রামে গেলেও দ্বিতীয়ার্ধে লিড ধরে রাখতে পারেনি আরামবাগ। ৭০ মিনিটে রনির পাসে বল পেয়ে দুর্দান্ত শটে আরামবাগের জাল কাঁপান মান্নাফ রাব্বি (২-২)। এরপর দু’দলই বেশ কিছু সৃষ্টি করলেও আর গোলের দেখা পায়নি। ফলে অমিমাংসিতভাবেই শেষ হয় ম্যাচ। আজ বিকাল ৪টায় একই ভেন্যুতে রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটির মুখোমুখি হবে উত্তর বারিধারা ক্লাব।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন