Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

বাঁশ দিবসে ত্রিপুরায় বাঁশের বিস্কুট

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৫:০৭ পিএম

উপমহাদেশে গ্রামীণ ল্যান্ডস্কেপে বাঁশবন বা বাঁশঝাড় খুবই পরিচিত দৃশ্য। বাঁশগাছের নানা অংশ অনেকে খেয়েও থাকেন। তবে সম্ভবত বাঁশ থেকে বিস্কুট বা কুকি এই প্রথম তৈরি করে দেখালো ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য ত্রিপুরা।

শুক্রবার আন্তর্জাতিক বাঁশ দিবসে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব বাঁশ বা বাঁশের কোড়ল থেকে এই বিস্কুট তৈরির কথা ঘোষণা করেছেন। ‘বাঁশের তৈরি সুস্বাদু কুকি’ তিনি নিজেও খেয়ে দেখেছেন, আর সেই ছবি পোস্ট করেছেন টুইটারেও। ত্রিপুরা সরকার আরও জানিয়েছে, দেশের বাজারে যেমন, তেমনি আন্তর্জাতিক স্তরে বাংলাদেশের বাজারেও তারা এই বাঁশের বিস্কুট বাজারজাত করার উদ্যোগ নিয়েছেন। গোমতী নদী দিয়ে সম্প্রতি অভ্যন্তরীণ নৌপথে ত্রিপুরার সঙ্গে বাংলাদেশের পণ্য চলাচল শুরু হয়েছে, সেই পথেই ‘বাঁশের বিস্কুট’ প্রতিবেশী দেশে পাঠাতে চায় ত্রিপুরা। বাঁশের কোড়ল দিয়ে এই অভিনব ও স্বাস্থ্যকর কুকি বিস্কুট তৈরি করেছে ত্রিপুরার একটি সরকারি কৃষি গবেষণা প্রতিষ্ঠান, যার নাম ব্যাম্বু অ্যান্ড কেইন ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট (বিসিডিআই)। বাঁশ ও আখের ফলন ও সেগুলো দিয়ে নানা ধরনের কৃষিপণ্য তৈরির জন্য গবেষণা করে থাকে এই সংস্থা।

বিসিডিআইয়ের প্রধান ড. অভিনব কান্ত ও সহকর্মীরাই ত্রিপুরার মুলি বাঁশ থেকে এই বিস্কুট তৈরি করেছেন। এই স্মরণীয় দিনটিতে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব বলেন, ‘ত্রিপুরার মানুষের প্রিয় খাদ্য বাঁশ কোড়লকে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক স্তরে বাজারজাত করার লক্ষ্যে উদ্যোগী আমাদের সরকার। আন্তর্জাতিক বাঁশ দিবসে প্রাথমিকভাবে বাঁশ কোড়লের বিস্কুট বাজারজাত করার স‚চনা করলাম।’ সূত্র: এনডিটিভি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ