Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

পেঁয়াজ আমদানিতে ৫ শতাংশ শুল্ক প্রত্যাহার- অর্থমন্ত্রী

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:০০ পিএম

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, পেঁয়াজ আংশিক আমদানি নির্ভর একটি নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য। নিকট অতীতে পেঁয়াজের বাজার অস্থিতিশীল হয়েছে এবং ২০১৯-২০ অর্থবছরে এই সঙ্কটটি কঠিন আকার ধারণ করে। পেঁয়াজের মূল্য সাম্প্রতিক সময়ে অনেকটা বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়া, সম্প্রতি ভারত থেকে পেঁয়াজ রফতানি নিষিদ্ধের কারণে বাজারে পেঁয়াজের মূল্য উর্দ্ধমুখী। পর্যালোচনায় দেখা যায়, দেশীয় পেঁয়াজ চাষীদের ন্যায্য মূল্য প্রাপ্তি নিশ্চিতকরণ, পেঁয়াজ চাষে উৎসাহ প্রদান এবং আমদানির উপর নির্ভরশীলতা হ্রাসের লক্ষ্যে পেঁয়াজ আমদানিতে চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরে পেঁয়াজ আমদানিতে ৫ শতাংশ আমদানি শুল্ক আরোপ করা হয়। বর্তমানে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় পেঁয়াজের অনুৎপাদনকালীন সময় হিসেবে পরিচিত আগামী বছরের মার্চ পর্যন্ত সময়ে পেঁয়াজের উপর আরোপিত ৫ শতাংশ আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার করা হয়েছে। রোববার ( ২০ সেপ্টেম্বর) অর্থমন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা গাজী তৌহিদুল ইসলাম অর্থমন্ত্রীর পক্ষে এক বার্তায় এ তথ্য জানান।

এর আগে গত বুধবার পেঁয়াজ আমদানির ওপর বিদ্যমান ৫ শতাংশ শুল্ক প্রত্যাহারের বিষয়টি বিবেচনা করা হবে বলে জানিয়েছিলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। এরপর রোববার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে পেঁয়াজ আমদানিতে ৫ শতাংশ শুল্ক প্রত্যাহার করা হলো বলে জানানো হয় অর্থমন্ত্রীর দফতর থেকে।

সূত্র মতে, গেল সোমবার হঠাৎ করেই ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। এরপর থেকেই পেঁয়াজের দাম বেড়ে প্রায় দ্বিগুণ হয়ে যায়। তবে, স্থলবন্দরে আটকে থাকা ভারতীয় পেঁয়াজ আসায় পাইকারী বাজারে সব ধরনের পেঁয়াজের দাম এরই মধ্যে কেজিতে ৮ থেকে ১০ টাকা কমেছে। এ বছর দেশে মোট উৎপাদিত পেঁয়াজের পরিমাণ ১৯ লাখ ১১ হাজার মেট্রিক টন। অথচ চাহিদা রয়েছে ২৪ থেকে ২৫ লাখ মেট্রিক টন। বাকি ৬ লাখ টন ঘাটতি মেটাতে ভারত থেকেই আমদানি করতে হয় পেঁয়াজ।



 

Show all comments
  • Tareq Sabur ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৯:০৫ পিএম says : 0
    Do you think, Mr. Jamal, India will ever export quality material to Bangladesh? Yes, they will never ever do it. The onion now they are exporting are 50 percent damaged already. You know, they are Indian!!!
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Kowaj Ali khan ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:০৮ পিএম says : 0
    পেয়াজ খাওয়া কমান। চাহিদা মিটে যাইবে। দরকার হইলে ইটালি, ফ্রান্স, ব্রিটেন হইতে আমদানি করেন, দাম অনেক কম পরিবে। ইনশাআল্লাহ। হে বাংলাদেশের ঈমানি জনতা ভারতীয় সব কিচু বরজন করুন বরজন করুনঃ বারমার সব কিচু। চায়নাকে শাবদান করিয়া দিন উইগুর মোসলমানদের উপর অত্যাচার দ্রুত বন্ধ করার জন্য।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Kowaj Ali khan ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:০৮ পিএম says : 0
    পেয়াজ খাওয়া কমান। চাহিদা মিটে যাইবে। দরকার হইলে ইটালি, ফ্রান্স, ব্রিটেন হইতে আমদানি করেন, দাম অনেক কম পরিবে। ইনশাআল্লাহ। হে বাংলাদেশের ঈমানি জনতা ভারতীয় সব কিচু বরজন করুন বরজন করুনঃ বারমার সব কিচু। চায়নাকে শাবদান করিয়া দিন উইগুর মোসলমানদের উপর অত্যাচার দ্রুত বন্ধ করার জন্য।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Shah Alam Khan ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:৩০ পিএম says : 0
    সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে, তবে আগামী মার্চে এই সুযোগ থাকবেনা বলা হয়েছে। আমি ব্যাক্তিগত ভাবে মনেকরি সরকারের উচিৎ হবে এবছর ট্যাক্স আর না বসানো। অবস্থা বুঝে পেয়াজের উৎপাদনের উপর বিবেচনা করে সামনের দিকে আবার ট্যাক্স নির্ধারণ করা যেতে পারে। আল্লাহ্‌ আমাকে সহ সবাইকে অবস্থার উপর বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা প্রদান করুন। আমিন
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অর্থমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন