Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

বরাদ্দের ৯০ শতাংশই অব্যবহৃত, মুসলমানদের উন্নয়নে যোগী সরকারের অনীহা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:১২ পিএম

উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে সংখ্যালঘু তথা মুসলমানদের প্রতি বিদ্বেষের অভিযোগ আগে থেকেই রয়েছে। এবার তার বিরুদ্ধে নতুন করে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ উঠেছে যে, তিনি নিজে তো সংখ্যালঘুদের উন্নয়নে খরচ করছেনই না, বরং কেন্দ্রীয় বরাদ্দের টাকাও আটকে দিচ্ছেন।

শনিবার ভারতের সংখ্যালঘু মন্ত্রণালয় সংসদে যে তথ্য পেশ করেছে, যাতে দেখা যাচ্ছে ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে সংখ্যালঘু উন্নয়ন খাতে কেন্দ্র যে অর্থ বরাদ্দ করেছিল, তার ১০ শতাংশও খরচ করেনি উত্তরপ্রদেশ সরকার। অর্থাৎ, ভারতের সংখ্যালঘু জনসংখ্যার একটা বড় অংশ উত্তরপ্রদেশে বসবাস করলেও তাদের উন্নয়নের জন্য বরাদ্দ ৯০ শতাংশের বেশি টাকা ব্যবহারই করা হয়নি। এই তথ্য প্রকাশ্যে আসতেই রাজ্যের সংখ্যালঘু অধ্যুষিত কেন্দ্রগুলোর সাংসদরা রীতিমতো ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

কেন্দ্রীয় সংখ্যালঘু উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের দেয়া তথ্য বলছে, ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে উত্তরপ্রদেশের সংখ্যালঘু উন্নয়নের জন্য কেন্দ্র বরাদ্দ করেছিল প্রায় ১৬০ কোটি টাকা। কিন্তু যোগী আদিত্যনাথের সরকার খরচ করেছে মাত্র ১৬ কোটি টাকার কিছু বেশি। বাকি টাকা অব্যবহৃত হয়ে রয়ে গেছে। এর আগে অখিলেশ যাদবের সরকার থাকাকালীন উত্তরপ্রদেশে সংখ্যালঘু উন্নয়ন খাতে অনেক বেশি খরচ হতো। মুখ্যমন্ত্রিত্বের শেষ বছর অখিলেশ সংখ্যালঘু উন্নয়ন খাতে কেন্দ্রের বরাদ্দের ৬২ শতাংশ খরচ করেছিলেন। কিন্তু যোগী সরকারের আমলে তা একধাক্কায় অনেকটা কমেছে। যা নিয়ে রীতিমতো ক্ষুব্ধ বিএসপি সাংসদ দানিশ আলি। তিনি বলছেন, ‘উত্তরপ্রদেশের মুসলিম এলাকাগুলোতে প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র তৈরির টাকাটাও নেই। কেন্দ্র যদি টাকা ছেড়েই থাকে তাহলে রাজ্য সরকার কেন আটকাচ্ছে? কেন্দ্রের উচিত উত্তরপ্রদেশের সংখ্যালঘুদের জন্য উপযুক্ত পরিমাণ অর্থ বরাদ্দ করা। আর রাজ্য সরকারের উচিত তা সঠিকভাবে খরচ করা।’

উত্তরপ্রদেশের আমরোহা, মোরাদাবাদের মতো সংখ্যালঘু অধ্যুষিত এলাকার সাংসদরা বলছেন, ‘এই খরচের অংকটাই মুখ্যমন্ত্রীর মুসলিম বিরোধী মানসিকতার প্রমাণ দেয়।’ উল্লেখ্য, যোগী আদিত্যনাথ নিজেকে হিদুত্ববাদী আইকন হিসেবে তুলে ধরতেই পছন্দ করেন। তার বিরুদ্ধে মুসলিম বিদ্বেষের অভিযোগও নেহাত কম নয়। তবে, এবার যে অভিযোগ উঠল তা রীতিমতো উদ্বেগের, অন্তত বিরোধী শিবির তেমনটাই মনে করছে। সূত্র: ইকনোমিক টাইমস।



 

Show all comments
  • Bulet ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৮:৫৪ পিএম says : 0
    Kas yogi Adityanath football hole ami biswer no.1 striker hotam, full guarantee dich6i .
    Total Reply(0) Reply
  • Pabel ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৯:০৮ পিএম says : 0
    This is the real black Dog character.
    Total Reply(0) Reply
  • Jack Ali ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৯:৪৪ পিএম says : 0
    May Allah wipe out this মুখ্যমন্ত্রী যোগী barbarian by corona virus. Ameen
    Total Reply(0) Reply
  • a aman ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:৪৯ পিএম says : 0
    This man is uneducated and a crazy temple gai loving hindoo terror.India has very good and creative society but it is run by some uneducated temple hindoo fundamentalist
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ