Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

সুপার ওভারের রুদ্ধশ্বাস রোমাঞ্চ জিতল দিল্লি

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৮:৩৩ এএম

আইপিএলের দ্বিতীয় দিনেই সুপার ওভারের রুদ্ধশ্বাস মুহূর্ত চলে এল। সেই সুপার ওভারে মাত্র দু’রান দিয়ে নায়ক দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা পেসার কাগিসো রাবাডা। যাঁকে সুপার ওভার বিশেষজ্ঞ বলা যেতেই পারে। রাবাডার দুর্ধর্ষ ওভারের পরে দিল্লির জয় ছিল শুধু সময়ের অপেক্ষা।

তার আগে রাজ করছিলেন কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের পেসার মহম্মদ শামি। চার ওভারে মাত্র ১৫ রান দিয়ে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন দিল্লির পৃথ্বী শ, শিমরন হেটমায়ার ও বিপক্ষ অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ারকে। দিল্লি ক্যাপিটালস থেমে যায় ১৫৭ রানে। এর পরে মায়াঙ্ক আগরওয়ালের (৬০ বলে ৮৯) অসাধারণ ইনিংসে কিংস ইলেভেন পঞ্জাবও ওই ১৫৭ রানই করে। যার ফলে ম্যাচ যায় সুপার ওভারে। একটা সময় পঞ্জাবের রান ছিল পাঁচ উইকেটে ৫৫। সেখান থেকে লড়াই শুরু করেন মায়াঙ্ক। কিন্তু সুপার ওভারে রাবাডার সামনে আত্মসমর্পণ করে পঞ্জাব। আউট হয়ে যায় মাত্র দু’রানে। যার ফলে সহজেই সুপার ওভারে ম্যাচ জিতে নেয় দিল্লি।

যদিও ম্যাচ শেষে টুইটারে শুরু হয়ে গিয়েছে বিতর্ক। পঞ্জাবের ইনিংসের ১৮.৩ ওভারে লং অনে বল ঠেলে দিয়ে মায়াঙ্ক দুই রান নেন। নন স্ট্রাইকিং এন্ড থেকে স্ট্রাইকিং এন্ডে ঢোকার সময় ক্রিস জর্ডানের ব্যাট নাকি পপিং ক্রিজের লাইন স্পর্শ করেনি, সেই যুক্তিতে স্কোয়ার লেগ আম্পায়ার ‘ওয়ান রান শর্ট’ দেন। যা নিয়ে টুইটারে বীরেন্দ্র সহবাগ মন্তব্য করেছেন, “আমার তো মনে হচ্ছে ওই আম্পায়ারকে ম্যাচের সেরার পুরস্কার দেওয়া উচিত ছিল।” ভিডিয়োতেও দেখা যায়, জর্ডানের ব্যাট লাইন স্পর্শ করেছিল। আর তাতেই বিতর্ক আরও বেড়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ক্রিকেট

১৪ অক্টোবর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন