Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ভিপি নুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণ সহায়তা মামলা, সামাজিক মাধ্যমে প্রতিবাদের ঝড়

সোশাল মিডিয়া ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:২৬ পিএম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণে সহায়তার অভিযোগ এনে মামলা দায়েরের ঘটনায় প্রতিবাদের ঝড় বইছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। বর্তমান সময়ের এই জনপ্রিয় ছাত্রনেতার বিরুদ্ধে এমন মামলায় নিন্দা ও ব্যাপক ক্ষোভ জানিয়েছেন সব শ্রেণি-পেশার মানুষ।
গতকাল রোববার রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী লালবাগ থানায় ওই মামলাটি করেন। মামলায় মোট ছয়জনকে আসামি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ধর্ষণে সহযোগিতাকারী হিসেবে নুরুল হক নুরের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।
ফেসবুকে নাবিলা জাহান ঝুমু লিখেছেন, ‘‘এই দেশে আসলে যেই সত্য কথা বলবে কিংবা সরকারের বিরোধীতা করবে তাকেই হামলা, মামলা, গুম, খুনের স্বীকার হতে হবে। ভিপি নূর তো এই কথা বার বার বলেই।একটা ছেলেকে কোনোমতেই যখন দেখলো ঠেকানো যায় না এবার তার বিরুদ্ধে ধর্ষনের নাটক সাজানো হলো?মানুষ এখন আর এগুলা খায় না।মানুষ ভালো করেই বুঝে চোর, বাটপার, লুচ্চা, বদমাশ কারা। ভিপি ১৮কোটি জনগণের প্রতিবাদী কন্ঠস্বর।যেই মেয়ে এই মামলা করছে ও নিশ্চয় চরিত্রহীন।হয়তো ভিপি নুরকে সে প্রস্তাব দিয়েছে কিন্তু সে রাজি হয় নাই বলে তার বিরুদ্ধে এই মামলা।’’
সিদ্দিক রহামান লিখেছেন, ‘‘যারা ১০০ জনকে ধর্ষন করে মিস্টি খাওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে কেউ মামলা করতে পারেনা। এই মামলা যেই করছে হয় তাকে সরকারের পক্ষ থেকে চাপ দিয়ে করাইছে না হলে মেয়েটি কোন.... হবে। আমার মনে হয় সরকারের পক্ষ থেকে কোন যড়যন্ত্র এর আগে ও তো সরকারের ক্যাডারেরা এই ভালো মানুষটাকে ফাঁসাতে অনেক চেষ্টাই তো করেছে।’’
মোঃ আজাদ লিখেছেন, ‘‘যে দেশে সাবেক শিক্ষামন্ত্রীর বিরুদ্ধে, চেন ছিনতাই, ভ্যানেটি ব্যাগ ছিনতাই, ডাঃ জাফরুল্লাহ স্যারের বিরুদ্ধে মাছ চুরি মামলা হয়, সে দেশে সব কিছু সম্ভব।আমরা এ স্বৈরাচার সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলতে ভয় পাই। প্রতিবাদ করতে ভয় পাই, যার করনে এই সব মামলা।আগামীতে হয়তো নুরুর বিরুদ্ধে থালা বাসন, কাপড়চোপড় চুরির মামলাও দিতে পারে।’’
বুলেট বাবর লিখেছেন, ‘‘অল্প কয়েকদিন আগে সাংবাদিক ইলিয়াস হোসেন বলেছিল ভারত বিরোধী কোনো কথাবার্তা বললেই হয়তো ধর্ষণ মামলা নয়তো খুনের শিকার হতে পারে যে কোন মানুষ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ