Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

প্রথম নারী পাইলট

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

ভারতের প্রথম নারী হিসাবে ফরাসি যুদ্ধবিমান রাফাল ওড়ানোর দায়িত্ব পেয়েছেন বিমানবাহিনীর দক্ষ অফিসার, সুদক্ষ পাইলট অবনী চতুর্বেদী। তিনি এর আগে প্রথম এয়ার পাইলট হিসাবে মিগ-২১ বাইসন জেট উড়িয়েছিলেন।

ভারতের অম্বালা বিমানবাহিনীর ঘাঁটির ১৭ নম্বর স্কোয়াড্রনে যোগ দিয়েছে পাঁচ ফরাসি রাফাল ফাইটার জেট। এই ১৭ গোল্ডেন অ্যারো স্কোয়াড্রন ফের একবার ইতিহাস লিখতে চলেছে। প্রথমবার রাফালের মতো দুর্র্ধষ ফাইটার জেট ওড়াবেন এক মহিলা এয়ার ফাইটার পাইলট। গর্বের সঙ্গে এমন যুদ্ধবিমানের ককপিটের হাল ধরবেন অবনী। তিনিই প্রথম একা মিগ-২১ যুদ্ধবিমানের ককপিটে বসার সাহস দেখিয়েছিলেন। দ্বিতীয়বার মিগ উড়িয়ে খবরের শিরোনামে এসেছিলেন এয়ার ফাইটার পাইলট ভাবনা কান্থ। বিমানবাহিনী জানিয়েছে, রাফালের মতো আধুনিক প্রযুক্তির যুদ্ধবিমান ওড়ানোর মতো সাহস ও দক্ষতা দুই আছে অবনীর। আকাশে বহুক্ষণ বিমান উড়ানোর অভিজ্ঞতাও আছে তার।

মধ্যপ্রদেশের ছোট্ট জেলার রাওয়ার বাসিন্দা অবনী। জন্ম ১৯৯৩ সালে। বাবা দিনকর চতুর্বেদী মধ্যপ্রদেশ সরকারি দফতরের ইঞ্জিনিয়ার। দেওলান্দ এলাকার স্কুলে পড়াশোনা শেষ করে রাজস্থানের বনস্থালি ইউনিভার্সিটি থেকে বিটেক করেন ২০১৪ সালে। এয়ার ফোর্স কমন অ্যাডমিশন টেস্টে পাস করে হায়দরাবাদের এযার ফোর্স অ্যাকাডেমিতে যোগ দেন অবনী। ২৫ বছর বয়সে এয়ার ফোর্স অ্যাকাডেমি থেকে পাস করে বিমানবাহিনীতে ফাইটার পাইলট হিসেবে যোগ দেন ২০১৬ সালে। বিদার থেকে তৃতীয় পর্বের প্রশিক্ষণ শেষ করে সুখোই ও তেজসের মতো যুদ্ধবিমান ওড়ানোর দক্ষতা অর্জন করেন অবনী। তার সঙ্গেই মোহনা সিং জিতারওয়াল ও ভাবনা কান্থকে ভারতীয় বিমানবাহিনীর ফইটার পাইলট হিসেবে ঘোষণা করা হয়। চলতি বছরেই রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের হাত থেকে নারীশক্তি পুরস্কার পান অবনী চতুর্বেদী। সূত্র : দ্য ওয়াল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত

১৫ অক্টোবর, ২০২০
১৫ অক্টোবর, ২০২০
১৪ অক্টোবর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন