Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

নাগেশ্বরী পৌরসভা সহকারী প্রকৌশলীকে মারধর

কুড়িগ্রাম জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

 

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে চাঁদা না পেয়ে পৌর সহকারী প্রকৌশলীকে মারধর করেছে এক সাংবাদিকসহ ২ সন্ত্রাসী। ঘটনাস্থলে ২ জন আটক হলেও পালিয়েছে সাংবাদিক। এ ঘটনায় থানায় মামলা করেছেন পৌর মেয়র। জানা যায়, গত ৮ সেপ্টেম্বর ই-জিপি সিস্টেমে একটি টেন্ডার হয়। এতে দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুরের ঠিকাদার দুলাল মোহন্ত সর্বনিম্ন দরদাতা হলেও তার কাগজপত্র সঠিক পায়নি দরপত্র যাচাই বাছাই কমিটি। পরে তারা গত সোমবার দ্বিতীয় দরদাতা রংপুর গুপ্তপাড়ার ঠিকাদার খায়রুল কবির রানার দরপত্র গ্রহণের সুপারিশ চুড়ান্ত অনুমোদনের জন্য প্রকল্প বরাবর পাঠায়। ওইদিন বিকেল হিঙ্গন রায় গ্রামের মৃণাল দত্তের ছেলে উজ্জ্বল দত্ত ও কলেজপাড়া কৃষ্ণপুর গ্রামের আলমগীর হোসেনের ছেলে আরিফুজ্জামান আরিফ ও স্থানীয় একটি পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি সোলরখামার কৃষ্ণপুর গ্রামের মনির মাওলানার ছেলে আজম আলী পৌর সহকারী প্রকৌশলী নুরুজ্জামানের কক্ষে প্রবেশ করে জোর করে কাগজপত্র দেখতে চান।
এতে তিনি অস্বীকৃতি জানালে তারা তার কাছে ১ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। চাঁদা না পেলে তারা ওই টেন্ডারের কাজ করতে দেবেন না বলে হুমকী দেয়। এতে সহকারী প্রকৌশলী প্রতিবাদ জানালে তারা টেবিলের কাগজপত্র ছুড়ে ফেলে ও একটি কম্পিউটার মনিটর ভেঙে ফেলেন। এক পর্যায়ে তারা প্রকৌশলীকে মারধর শুরু করেন।
পরে তার চিৎকারে সেখানে থাকা পৌর মেয়র আব্দুর রহমান মিয়াসহ অন্যান্যরা তার কক্ষে গিয়ে তাকে উদ্ধার করেন। এ সময় তারা ঘটনাস্থলেই উজ্জ্বল দত্ত ও আরিফুজ্জামান আরিফকে আটক করেন। কৌশলে পালিয়ে যায় সাংবাদিক আজম আলী। পরে আটককৃতদের নাগেশ্বরী থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ ঘটনায় পৌর মেয়র আব্দুর রহমান মিয়া বাদী হয়ে উজ্জ্বল দত্ত, আরিফুজ্জামান আরিফ ও সাংবাদিক আজম আলীকে আসামি করে নাগেশ্বরী থানায় একটি মামলা করেন।
পৌর মেয়র আব্দুর রহমান মিয়া জানান, ঘটনাটি অত্যন্ত ন্যাক্কারজনক ও আপত্তিকর। এটা মেনে নেয়া যায় না। নাগেশ্বরী থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রওশন কবীর জানান, আটককৃতদের মঙ্গলবার কুড়িগ্রাম জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মারধর


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ