Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

জাতিসংঘ অধিবেশনে শান্তির বার্তা চীনের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:২১ পিএম

জাতিসংঘের ৭৫ তম অধিবেশনে গতকাল মঙ্গলবার বক্তব্য রাখতে গিয়ে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বলেন, ঠান্ডা যুদ্ধ বা রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের কোনও ইচ্ছা নেই। জিনপিং বলেন, আমরা আলোচনার মাধ্যমে অন্যদের সঙ্গে মতবিরোধ মেটাতে বা বিরোধের সমাধান করতেই পছন্দ করি। আমরা কেবল নিজেদের বিকাশের চেষ্টা করি না। সোমবার জাতিসংঘের অধিবেশন শুরুর পর ১৯৩ সদস্য দেশগুলির প্রত্যেকের বক্তৃতা মঙ্গলবার থেকে শুরু হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, চীন বিশ্বব্যাপী শান্তিপূর্ণ, উন্মুক্ত, সমবায় ও সাধারণ উন্নয়নে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বৃহত্তম উন্নয়নশীল দেশ।
চীনা প্রেসিডেন্ট জাতিসংঘে এমন সময়ে ভাষণ দিলেন, যখন পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর অঞ্চলে চরম উত্তেজনাপূর্ণ আবহ তৈরি হয়ে রয়েছে। চীন-ভারত দুই পক্ষের রণসজ্জার কারণে সীমান্তে যুদ্ধপরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

সীমান্ত উত্তেজনায় দু'দেশের বিমান বাহিনী ঘাঁটিগুলিও যে কোনও পরিস্থিতি মোকাবিলায় তৈরি রয়েছে। কূটনৈতিক থেকে সামরিক নানা পর্যায়ে একাধিকবার দু-দেশের মধ্যে বৈঠকের পরেও লাদাখে উত্তেজনা কমেনি। আলোচনায় দু-পক্ষই সেনা সরিয়ে নেওয়ার কথা বললেও চীন শেষ পর্যন্ত সে কথা রাখেনি। নামমাত্র কয়েকটি জায়গায় সেনা সরালেও দেখা গিয়েছে অন্যত্র বাড়িয়েছে। ফলে পূর্ব লাদাখে গালওয়ান সংঘাতের কয়েক মাস পরেও উত্তেজনা আবহের এতটুকু বদল হয়নি।
শি জিনপিং ছাড়াও মঙ্গলবার জাতিসংঘের অধিবেশনে বক্তব্য রাখেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং ব্রাজিলের রাষ্ট্রপতি জাইর বলসোনারো। রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভøাদিমির পুতিনও উপস্থিত ছিলেন। ইউএনজিএ ঐতিহ্যগতভাবে দেশগুলিকে সাফল্য অর্জন, পারস্পরিক সমর্থন, প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে বিরত রাখা এবং বিশ্বব্যাপী অগ্রাধিকার সম্পর্কে মতামত প্রকাশের প্ল্যাটফর্ম হিসাবে কাজ করে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চীন

২২ অক্টোবর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ