Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

সমুদ্রপথে ১০ দেশ থেকে পেঁয়াজ আসছে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

ভারতের পেঁয়াজ নিয়ে নাটকের কারণে দেশে পেঁয়াজের দাম বেড়ে গেছে। অতপর ভোক্তা চাহিদা মেটোতে আরো ১০টি দেশ থেকে সমুদ্রপথে পেঁয়াজ আমদানির অনুমতিপত্র (আইপি) নিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। দেশগুলো হচ্ছে চীন, মিশর, তুরস্ক, মায়ানমার, নিউজিল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, মালয়েশিয়া, সাউথ আফ্রিকা, ইউক্রেন ও পাকিস্তান।
চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরের উদ্ভিদ সংগনিরোধ কেন্দ্র স‚ত্রে জানা গেছে, গতকাল বৃহস্পতিবার এ কেন্দ্র থেকে ৪ হাজার ২২৪ টন পেঁয়াজ আমদানির জন্য ১৩টি আইপি ইস্যু হয়েছে। ৩ সেপ্টেম্বর থেকে এ পর্যন্ত ১ লাখ ৩৮ হাজার ৯৬৫ টন পেঁয়াজ আমদানির জন্য ৩০৫টি আইপি ইস্যু করেছে কেন্দ্রটি।

জানতে চাইলে কেন্দ্রের উপ-পরিচালক ড. মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান বুলবুল বলেন, একজন আমদানিকারক বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ভারত থেকে সমুদ্রপথে ২০০ টন পেঁয়াজ আমদানির অনুমতিপত্র নিয়েছেন। যদিও এটা পরিমাণে খুবই কম। তিনি বলেন, ব্যবসায়ীরা নতুন নতুন বিভিন্ন দেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানির বিষয়ে খোঁজ নিচ্ছেন। ভাররে বাইরে আরো ১০টি দেশ থেকে পেঁয়াজের আইপি ইস্যু করেছি আমরা। আশাকরি, যত দ্রæত সম্ভব সমুদ্রপথে পেঁয়াজ নিয়ে আসবেন আমদানিকারকরা।
নেদারল্যান্ড, তুরস্ক, মিশরসহ কয়েকটি দেশ থেকে ২০ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানির লক্ষ্যে এস আলম গ্রæপ এলসি খুলেছে। সংকট মোকাবিলায় দেশের চাহিদা মেটাতে বিভিন্ন দেশ থেকে এক লাখ টন পেঁয়াজ আমদানি করতে চায় দেশের অন্যতম বড় শিল্পগ্রæপটি।

ভোগ্যপণ্যের বড় আমদানিকারক খাতুনগঞ্জের বিএসএম গ্রæপের চেয়ারম্যান আবুল বশর চৌধুরী বলেন, দেশে পেঁয়াজ সংকট শুরুর পর আমদানি অনুমতিপত্র নিয়ে হল্যান্ড ও মিশর থেকে ৫ হাজার টন পেঁয়াজ আনার উদ্যোগ নিয়েছি আমরা। ইতিমধ্যে আমদানি ঋণপত্র (এলসি) খুলেছি। এর আগেও পেঁয়াজ সংকটের সময় আমরা পেঁয়াজ আমদানি করে বাজার স্থিতিশীল রাখার চেষ্টা করেছি।

স‚ত্র জানায়, স¤প্রতি ভারত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধের পর চলতি মাসের প্রথম ২০ দিনে বিকল্প দেশ থেকে ৫ লাখ ৭২ হাজার ৯৭৫ টন পেঁয়াজ আনার আইপি নিয়েছেন পাঁচ শতাধিক ছোট বড় ব্যবসায়ী। এসব পেঁয়াজ সমুদ্রপথে চট্টগ্রাম বন্দর হয়ে বাংলাদেশে ঢুকবে।

 



 

Show all comments
  • Saidur ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:২৩ এএম says : 0
    গত বছরের ভারতীয় আচরণ থেকে সরকার কি শিক্ষা নিল? মন্ত্রী সেই সময় বলেছেন শিক্ষা নিবেন, জাতি জানতে চায় অগ্রিম কেন চাহিদা মত পেয়াজ বুকিং করা হয়না? এই সমস্যা প্রতি বছর হচ্ছে ????????
    Total Reply(0) Reply
  • Saidur ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:২৩ এএম says : 0
    গত বছরের ভারতীয় আচরণ থেকে সরকার কি শিক্ষা নিল? মন্ত্রী সেই সময় বলেছেন শিক্ষা নিবেন, জাতি জানতে চায় অগ্রিম কেন চাহিদা মত পেয়াজ বুকিং করা হয়না? এই সমস্যা প্রতি বছর হচ্ছে ????????
    Total Reply(0) Reply
  • Md Belal Hosain Sohail ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:৫৬ এএম says : 0
    ভারত থেকে পেয়াজ আমদানি একেবারে বন্ধ করে দেওয়া উচিত এবং সাথে সাথে অন্য দেশের উপর নির্ভরশীল হওয়া দরকার পেয়াজ আনার ব্যাপারে
    Total Reply(0) Reply
  • Sawpan Chatterjee ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:৫৬ এএম says : 0
    ভারত নির্ভরতা কমাতেই হবে। এই একগুয়েমি মনোভাবের উপযুক্ত জবাব হয়েছে। বাজার মনিটরিং কমিটি গঠন করে অবশ্যই বাজার নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। অসাধু ব্যবসায়ীরা যেনো এটাকে নিয়ে কোনরকম অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে না পারে সেদিকে অবশ্যই নজরদারি করতে হবে। প্রয়োজনে ভারতের সাথে সকল রকমের বানিজ্য চুক্তি স্থগিত করতে হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Dewaan Alamgir ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:৫৭ এএম says : 0
    গোবর এক অদ্ভুত জিনিস। শুকিয়ে গেলে জ্বালানি, জমিতে গেলে জৈব সার, পানিতে গেলে মাছের খাদ্য, ভারতে গেলে প্রসাদ, আর বাঙালীর মগজে গেলে দেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি!!
    Total Reply(0) Reply
  • Habibur Rahman Habibur ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:৫৭ এএম says : 0
    ভারতের আটকে পড়া ট্রাকের পেঁয়াজ সব পঁচে গেছে পঁচা পেঁয়াজ বাংলাদেশে কেনো আনবে ভারত ছাড়া কি পেঁয়াজ নাই পাকিস্তান চীন তুরস্ক থাকে পেঁয়াজ আনা হোক
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পেঁয়াজ

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০
২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ