Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

রাজশাহীর পদ্মায় নৌকা ডুবিতে নিখোঁজ ছাত্রীর সন্ধান এখনো মেলেনি, উদ্ধারে অভিযান চলছে

রাজশাহী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:৪৩ পিএম

১৬ ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও রাজশাহীর পদ্মা নদীতে ইঞ্জিনচালিত নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী সাদিয়া ইসলাম সূচনা ও তার ফুফাতো ভাই রিমনের সন্ধান মেলেনি এখনো। পদ্মার নবগঙ্গা এলাকায় উদ্ধার তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।
ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স রাজশাহীর উপ-সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন জানান, নিখোঁজ দুই শিক্ষার্থীকে উদ্ধারে অভিযান এখনও অব্যাহত রয়েছে। রাতে রাজশাহী জেলা প্রশাসক আবদুল জলিলও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি সার্বিক খোঁজ-খবর রাখছেন।
নিখোঁজ সাদিয়া ইসলাম সূচনা আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ (এআইইউবি) এর বিবিএ তৃতীয় সেমিস্টারের ছাত্রী বলে তার স্বজনরা জানান। সূচনা ঢাকার ধানমন্ডি এলাকায় পরিবারের সাথে বসবাস করেন। সম্প্রতি তিনি পবা উপজেলার খোলাবোনা এলাকায় চাচা জালাল উদ্দিনের গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন। তার সাথে নিখোঁজ আরেকজনের নাম রিমন (১৪)। তার বাড়ি নওগাঁয়। সম্পর্কে তারা মামাতো-ফুপাতো ভাইবোন।
ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে নবগঙ্গা এলাকায় পদ্মা নদীতে মাঝি এবং ১২ জন যাত্রী নিয়ে ইঞ্জিনচালিত নৌকা ডুবে যায়। পরে অন্য নৌকা গিয়ে মাঝিসহ ১১ জনকে উদ্ধার করে। তবে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী সাদিয়া ইসলাম সূচনা ও তার ভাই রিমন এখনও নিখোঁজ রয়েছে।
রাজশাহী ফায়ার সার্ভিস জানায়, শুক্রবার রাত সাড়ে নয়টা পর্যন্ত ডুবুরিদল উদ্ধার অভিযান চালায়। দুজনের সন্ধান না পাওয়ায় রাত সাড়ে নয়টায় উদ্ধার অভিযান শেষ করা হয়। আজ শনিবার সকাল ছয়টা থেকে আবারও উদ্ধার অভিযান শুরু করা হয়েছে। রাত পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চলবে। #
এদিকে রাজশাহীর পদ্মায় নৌকাডুবির ঘটনায় নৌকার দুই মালিক ও মাঝিসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে নৌপুলিশ। লাইফ জ্যাকেট বাধ্যতামূলকভাবে না পরিয়ে অবহেলার সাথে নৌকা চালানোয় রাজশাহী নৌপুলিশ ফাঁড়ির পক্ষ থেকে একজন কন্সটেবল বাদী হয়ে তিনজনকে আসামী করে মামলাটি দায়ের করেন । মামলার আসামীরা হলেন, নৌকার মালিক ইসা, মিলন ও নৌকার মাঝি সুমন। গতকাল শনিবার দুপুর ১২টার দিকে রাজশাহীর দামকুড়া থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ