Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

সিলেটে এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গণধর্ষনের ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটি দায়িত্বে অবহেলার কারনে সাময়িকভাবে অব্যাহতি দিয়েছে ২জনকে

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৭:০৩ পিএম

সিলেট এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ গণধর্ষণের ঘটনায় ৩ সদস্যে বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগে কলেজের প্রধান ফটকের দারোয়ান রাসেল মিয়া ও চৌকিদার সবুজ আহমদ রুহানকে সাসপেন্ড করেছে। এমসি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর সালেহ আহমদ এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, কলেজের একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। প্রাথমিকভাবে দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় এ ২ জন নিরাপত্তা কর্মীকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে সাময়িকভাবে । মাস্টাররোলে কর্মরত ছিলেন তারা। শনিবার দুপুরে কলেজের গণিত বিভাগের প্রধান অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন চৌধুরীকে প্রধান করে এই তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অপর দুই সদস্য হলেন-রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জীবন কৃষ্ণ (শ্রীকান্ত ছাত্রাবাসের হোস্টেল সুপার) ও অপর হোস্টেল সুপার জামাল উদ্দিন। কমিটিকে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে এক সপ্তাহের মধ্যে। গতকাল শুক্রবার সিলেটের এমসি কলেজে স্বামীর সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হন এক গৃহবধূ। রাত সাড়ে ৯টার দিকে টিলাগড় এলাকার কলেজটির ছাত্রাবাসে এ ঘটনা ঘটে। ওই তরুণীকে ক্যাম্পাস থেকে তুলে ছাত্রাবাসে নিয়ে ধর্ষণ করা হয় বলে পুলিশ জানিয়েছে।



 

Show all comments
  • হাসান ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৮:১১ পিএম says : 0
    ধর্ষণ করেছে ছাত্রলীগ আর শাস্তি দেয়া হলো নিরিহ লোকগুলাকে? এই চরম দুঃসময়ে এই দরিদ্র লোকগুলোর ওপর এই অন্যায় অবিচার! এরা কি মানুষ নাকি জানোয়ার? প্রশাসনের কারো যদি শাস্তি পেতেই হয় তাহলে সর্বপ্রথম নাম তো আসবে অধ্যক্ষের, তারপর হল সুপারের
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ