Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

পাকিস্তানের ড্রোনের মাধ্যমে চীনের অস্ত্র যাচ্ছে কাশ্মীরে!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:১৪ এএম

কাশ্মীর নিয়ে নতুন করে ভাবছে পাকিস্তান ও চীন। কাশ্মীরের স্বাধীনতাকামীদের সাহায্যে দুই দেশ বিভিন্ন কৌশল নিয়েছে।

এদিকে লাদাখ সীমান্তে যখন সংঘাত চলছে তখন চীনের বিরুদ্ধে নতুন ষড়যন্ত্রের তথ্য সামনে আনলেন ভারতের গোয়েন্দারা। চীনের ইশারাতেই জম্মু ও কাশ্মীরে পাকিস্তান অস্ত্র ঢোকাচ্ছে। পাকিস্তানকে সেই সমস্ত অস্ত্র সরবরাহ করছে চীন।

গোয়েন্দা প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই-কে চীন নির্দেশ দিয়েছে, গোটা উপত্যকায় অস্ত্রে ছয়লাপ করে দিতে। প্রমাণ স্বরূপ বলা হয়েছে, গত আড়াই মাসে জম্মু ও কাশ্মীর থেকে যত অস্ত্র উদ্ধার করেছেন ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনী তার অধিকাংশের গায়েই চীনের চিহ্ন রয়েছে।

তবে পাকিস্তানি জঙ্গিদের অনুপ্রবেশ রুখতে দুর্ভেদ্য দুর্গ তৈরি করেছে ভারতীয় নিরাপত্তাবাহিনী। নিয়ন্ত্রণ রেখায় যে অঞ্চলগুলো অনুপ্রবেশপ্রবণ সেখানে ইতিমধ্যেই নিরাপত্তা বেষ্টনি আরও কঠোর করেছে বিএসএফ।

তবে কাশ্মীরের স্থানীয়রাও যে এ বিষয়ে যুক্ত হচ্ছে তাও বলা হয়েছে গোয়েন্দা রিপোর্টে, যা নিয়ে উদ্বেগ রয়েছে নিরাপত্তাবাহিনীর মধ্যেও। গত ১০ সেপ্টেম্বর নিয়ন্ত্রণ রেখার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে কাশ্মীর গিয়েছিলেন সেনা প্রধান মনোজ মুকুন্দ নারাভানে। বিএসএফ ও সেনাবাহিনীকে প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিয়ে এসেছিলেন তিনি। তার মধ্যেই গোয়েন্দা রিপোর্টে উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য।

দিন কয়েক আগেই জম্মু ও কাশ্মীরের রাজৌরি জেলা থেকে তিন জঙ্গিকে গ্রেফতার করে গোলাবারুদ-সহ বেশ কিছু অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। ধৃত তিনজন দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলার বাসিন্দা। তারা রাজৌরিতে অস্ত্র আনতে গিয়েছিল। অস্ত্রগুলো ড্রোনের মাধ্যমে পাকিস্তান থেকে সরবরাহ করা হচ্ছিল বলে জানা যায়। সূত্র: দ্য ওয়াল



 

Show all comments
  • saif ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:৫০ এএম says : 0
    বছরের সেরা কৌতুক হবে এটা, সম্ভবত ভারতীয়রা এই খবর দিয়ে গ্রিনিজ অয়াল্ড রেকর্ড ও করতে পারবেন। কেননা, চিনারাকি এতই বোকা যে চিনা লেখা রেখে বা ট্রেড মার্ক রেখে অবৈদ অস্র ভারত বা অন্যকোন দেশে অবৈধ ভাবে পাঠাবে??? যেমন ছাগল তেমন তার মে মে।
    Total Reply(0) Reply
  • alu ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১:৩১ পিএম says : 0
    ফালতু কথা।কাস্মিরে অস্ত্র দেয়ার জন্য চিনের অনুমতির প্রয়োজন নাই।কাস্মিরে চিনের কোন প্রভাব নাই।কাস্মির মুক্ত করতে পাকিস্থান একাই জথেসঠ ,সুধু আল্লাহ্‌র সাহায্য লাগবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Jack Ali ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১১:৩১ এএম says : 0
    O'Allah wipe out Modi and his barbarian army from Kashmir by corona virus. Ameen
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান-ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ