Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

কঙ্গনার বিরুদ্ধে অপরাধমূলক ফৌজদারী মামলা

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:৪৯ এএম

এবার কৃষিবিল বিরোধীদের আক্রমণ করতে গিয়ে বিপাকে পড়লেন বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। শনিবার নায়িকার বিরুদ্ধে অপরাধমূলক ফৌজদারী মামলা দায়ের হলো কর্ণাটকের টুমকুরের বিচারবিভাগীয় মাজিস্ট্রেট আদালতে।

জানা গিয়েছে, কঙ্গনা রানাউতের বিরুদ্ধে অপরাধ আইনের ৪৪ মর্যাদাহানি, ১০৮ অপরাধমূলক কাজে মদত দেওয়া, ১৫৩ দাঙ্গায় উস্কানি, ১৫৩ (এ) ভিন্ন গোষ্ঠী ও সম্প্রদায়ের মধ্যে শত্রুতায় ইন্ধন জোগানো এবং ৫০৪ সামাজিক শান্তি-শৃঙ্খলা বিঘ্নিত হয় এমন অবমাননাকর মন্তব্য করার কারণে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মূলত গেল সপ্তাহে সংসদে বিতর্কিত কৃষি বিলটি পাশ করিয়ে নেয় কেন্দ্রীয় সরকার। তাতে ন্যূনতম সহায়ক মূল্য ঘিরে ধোঁয়াশা থাকায় বিলটির বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামেন কৃষকরা। কিন্তু তাদের আশ্বস্ত করে টুইটারে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি লেখেন, 'নতুন বিল আইনে পরিণত হলেও ন্যূনতম সহায়ক মূল্য চালু থাকবে।'

মোদির সেই টুইটটি শেয়ার করে কৃষিবিল বিরোধীদের আক্রমণ করে বসেন কঙ্গনা রানাউত। টুইটারে তিনি লিখেছেন, 'প্রধানমন্ত্রীজি, কেউ ঘুমালে তাকে জাগানো যায় কেউ না বুঝলে তাকে বোঝানো যায় কিন্তু যিনি ঘুমানোর অভিনয় করেন, বুঝেও না বোঝার ভান করেন, আপনার বোঝানোয় তাফ কী যায় আসে? এরা সেই সন্ত্রাসগোষ্ঠী, যারা সিএএ-র আওতায় কারও নাগরিকত্ব না গেলেও রক্তবন্যা বইয়ে দিয়েছিলেন।'

কঙ্গনার এই টুইটটি প্রকাশ্যে আসতেই নেটদুনিয়ায় জোর শোরগোল শুরু হয়ে গিয়েছে। অনেকের কথায়, অভিনেত্রী দেশের দরিদ্র কৃষকদের চরম অপমান করেছেন। তাই কঙ্গনার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিত বলেও দাবি তুললেন নেটিজেনরা। তবে অন্য এক টুইটে কৃষকদের সন্ত্রাসবাদী বলেননি বলে পাল্টা দাবি করেন কঙ্গনা। আর অভিযোগ প্রমাণ করতে পারলে টুইটার ছেড়ে দেবেন বলেও ঘোষণাও দিয়েছেন বলিউডের এই বিতর্কিত কুইন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কঙ্গনা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ