Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

সুশান্তের শরীরে বিষ পাওয়া যায়নি: তদন্ত প্রতিবেদন

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১:০৩ পিএম

বলিউড তারকা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর কারণ অনুসন্ধানের পর প্রতিবেদন জমা দিয়েছে এইমস। সিবিআই প্রতিবেদনটি খতিয়ে দেখার পর এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানিয়েছে বলে দাবি ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের। তবে এই প্রতিবেদনে কি রয়েছে তা জানতে সকলেই আগ্রহী।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি, সুশান্তের শরীরে কোনো জৈব বিষ পাওয়া যায়নি। তারপরও খুনের আশঙ্কা থেকে সরে দাঁড়ানো যায়না।

বলিউডের এ তারকার মৃত্যুর কারণ অনুসন্ধান করতে গিয়ে চিকিৎসকদের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন সুশান্তের পারিবারিক আইনজীবী বিকাশ সিং। তার দাবি, সুশান্ত আত্মহত্যা করেননি, তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে এবং এ বিষয়ে এইমসের (AIIMS) চিকিৎসকরাও শতভাগ নিশ্চিত বলে মনে করেন তিনি।

এদিকে আইনজীবী বিকাশ সিং’র এমন দাবি অস্বীকার করেছেন চিকিৎসক দলের নেতৃত্বে থাকা ড. সুধীর গুপ্তা। তিনি দেশটির সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, এখনও অনুসন্ধান চলছে। আইনজীবী যা কিছু বলছেন তা সঠিক নয়। ফাঁসের দাগ বা ঘটনাস্থলের ছবি দেখেই আমরা খুন বা আত্মহত্যা- এমন সিদ্ধান্তে আসেতে পারিনা। এর জন্য আরও সময় প্রয়োজন, অনুসন্ধান প্রয়োজন।

চিকিৎসক দল সুশান্তের মৃত্যু-তদন্ত ও ভিসেরা প্রতিবেদন পুনর্মূল্যায়ণ করেছেন। ভিসেরা নমুনার অবশিষ্ট ২০ শতাংশের সহায়তা নিয়ে তার মৃত্যু-রহস্য অনুসন্ধান করেছেন। সে আত্মহত্যা করেছে না তাকে হত্যা করা হয়েছে এ সংক্রান্ত চূড়ান্ত প্রতিবেদন ২২ সেপ্টেম্বর দাখিল করার কথা ছিল। কিন্তু নির্ধারিত সময়ে তা দাখিল না হওয়ায় ক্ষুব্ধ সবাই। অবশেষে গতকাল সোমবার রাতের দিকে প্রতিবেদনের কথা সিবিআই’কে জানায় এইমস।

এদিকে এইমসের চিকিৎসকরা তদন্তে দেখেছেন, সুশান্তের শরীরে কোনো জৈব বিষ পাওয়া যায়নি। তদন্তের সময় এইমসের চিকিৎসকদের সাথে নিয়মিত যোগাযোগও ছিল তদন্ত-কর্মকর্তাদের। আর এখন চিকিৎসকদের প্রতিবেদনের ওপরই নির্ভরশীল সিবিআই- এমনই জানা গেছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বলিউড


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ