Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

আজমেরী ওসমানের বিরুদ্ধে মডেল গ্রুপের জিডি

নারায়ণগঞ্জ থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৫:৫৮ পিএম

নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের প্রয়াত সংসদ সদস্য নাসিম ওসমানের একমাত্র ছেলে আজমেরী ওসমানের বিরুদ্ধে জিডি হয়েছে। রপ্তানিমুখী শিল্প কারখানা মডেল গার্মেন্টের মানবসম্পদ কর্মকর্তা অরূপ কুমার সাহা। জিডিতে শহরের নগর খানপুর এলাকায় বিবি মরিয়ম উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শফিউল আলম সহ আজমেরী ওসমানের সহযোগি তরিকুল ইসলাম লিমন, নগর খানপুর এলাকার আনোয়ারুল করিম ভূইয়া টিটু, সনেটকে বিবাদী করা হয়েছে।
মডেল গার্মেন্টের মালিক মাসুদুজ্জামান হলেন বিবি মরিয়ম উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা পরিষদের সভাপতি।২৮ সেপ্টেম্বর সোমবার ফতুল্লা মডেল থানায় দায়ের করা ওই জিডিতে উল্লেখ করা হয়, বিবি মরিয়ম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ শফিউল আলম খানের চাকরির মেয়াদ শেষ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০। তিনি নিয়ম বহির্ভূতভাবে পুনরায় এই বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের চাকরিতে বহাল থাকতে বিভিন্ন মহলের তদবির শুরু করে।
এই বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মডেল শিল্প গ্রুপের প্রতিষ্ঠান মডেল ডি ক্যাপিটেল ইন্ডাস্ট্রির মালিক মাসুদুজ্জামান। বিদ্যালয়ের মিটিংয়ে কিছু দায়িত্ব মাসুদুজ্জামান মালিকানাধী শিল্প প্রতিষ্ঠানের মহাব্যবস্থাপক মনির হোসেন পালন করে থাকেন। সেকারণে মনির হোসেনকে তুলে নিতে সোমবার বিকেলে ফতুল্লার তল্লা রোড খাঁপুর এলাকায় মাসুদুজ্জামানের পোশাক শিল্প প্রতিষ্ঠানে সামনে একটি সাদা পাজেরো গাড়িতে বসে তার তিন সহযোগী তরিকুল ইসলাম লিমন, আনোয়ারুল করিম টিটু ও সনেটকে নির্দেশ দেয় মনির হোসেনকে ধরে আনতে।
ওই তিন জন নিরাপত্তা প্রহরীদের মারধর এবং বকাবাজি করে মনিরকে খুঁজে ও বলে নিয়ম টিয়ম বুঝিনা,মেয়াদ শেষ হলেও শফিউল আলম বিবি মরিয়ম স্কুলে প্রধান শিক্ষক থাকবে। পরে মনির হোসেনকে না পেয়ে হত্যার হুমকি দিয়ে ফিরে যায়।এদিকে মঙ্গলবার দুপুরে বিবি মরিয়ম স্কুলের সামনে এলাকাবাসী সাংসদ পুত্র আজমেরী ওসমান ও প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল করে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন