Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

হামলা ঠেকাতে না পারলে দূতাবাস বন্ধ হবে

ইরাকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় একই পরিবারের ৫ জন নিহত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০৪ এএম

দ‚তাবাসে হামলা আটকাতে না পারলে ইরাক থেকে ক‚টনীতিক প্রত্যাহারের হুমকি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এক সপ্তাহ আগেই ইরাকের প্রেসিডেন্ট বারহাম সালিহকে ফোন করে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও দ‚তাবাস বন্ধের এ হুমকি দেন বলে জানিয়েছেন দুই ইরাকি কর্মকর্তা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এই দুই কর্মকর্তা এবং পশ্চিমা দুই ক‚টনীতিকও জানিয়েছেন, ওয়াশিংটন এরই মধ্যে ক‚টনীতিকদের দেশে ফিরিয়ে নেওয়ার প্রস্তুতি শুরু করেছে। যদি তাই হয়, তবে ইরাক আবারও যুদ্ধক্ষেত্র হয়ে উঠতে পারে বলে শঙ্কিত ইরাকিরা। ইরাকের রাজধানী বাগদাদের সুরক্ষিত ‘গ্রিন জোনে’ যুক্তরাষ্ট্রসহ আরও বেশ কয়েকটি দেশের দ‚তাবাস রয়েছে। ওই এলাকায় যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ কার্যালয়ও আছে। স¤প্রতি বাগদাদের ‘গ্রিন জোনে’ রকেট এবং বোমা হামলার ঘটনা বেড়ে গেছে। ওয়াশিংটনের দাবি, ইরান সমর্থিত ইরাকি স্বশস্ত্রগোষ্ঠী ওই হামলা চালাচ্ছে। ইরাকের অভ্যন্তরীন বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের হস্তক্ষেপ বন্ধ এবং ইরাক থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারে বাধ্য করতে এ হামলা চালানো হচ্ছে বলে ধারণা অনেকের। ইরাকে যুক্তরাষ্ট্রের পাঁচ হাজারের বেশি সেনা মোতায়েন আছে। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রদপ্তর বলেছে, “ইরান সমর্থিত গোষ্ঠীগুলো আমাদের দ‚তাবাসে রকেট হামলা করছে। এ হামলা শুধু আমাদের জন্যই নয়, ইরাক সরকারের জন্যও বিপেদর কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।” গত জানুয়ারিতে ইরানের শীর্ষ সামরিক কমান্ডার কাসেম সোলেমানিকে বাগদাদ বিমানবন্দরের কাছে ড্রোন হামলা চালিয়ে হত্যা করে যুক্তরাষ্ট্র। সোলেমানি হত্যার প্রতিশোধ নিতে ইরাকে মার্কিন সেনা ঘাঁটিতে রকেট হামলা চালায় ইরান। অপরদিকে, ইরাকি সশস্ত্র গোষ্ঠীর ছোড়া দুটি কাতিউশা ক্ষেপণাস্ত্র রাজধানী বাগদাদের একটি বাড়িতে আঘাত করলে দুই নারী ও তিন শিশুর মৃত্যু হয়েছে। আরও দুই শিশু গুরুতর আহত হয়েছে বলে সোমবার জানিয়েছে ইরাকি সামরিক বাহিনী। এক প্রতিবেদনে এই হতাহতের খবর দিয়েছে কাতারের সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা। ইরাকে কয়েক মাসে প্রথমবার সশস্ত্র হামলায় কোনও বেসামরিক নাগরিক হতাহতের ঘটনা ঘটলো। তিন ইরাকি শিশু ও দুই নারী একই পরিবারের। বাগদাদ বিমানবন্দরের কাছে মার্কিন ঘাঁটি লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র দুটি ছোড়া হয়েছিল। কিন্তু তা দুর্ঘটনাবশত ওই পরিবারের বাড়িতে পড়ে। এক বিবৃতিতে এই তথ্য দিয়েছে সেনাবাহিনী। বাগদাদের আল জিহাদ থেকে ক্ষেপণাস্ত্রগুলো ছোড়া হয়েছিল। এর আঘাতে বাড়িটি পুরোপুরি ধসে গেছে। কাপুরুষোচিত এই হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে সামরিক বাহিনী। তাদের অভিযোগ, বিশৃঙ্খলা তৈরি করতে এবং সাধারণ মানুষকে আতঙ্কিত করতে এমন হামলা করেছে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো। সিএনএন, রয়টার্স, আল-জাজিরা।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইরাক

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ