Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

ইসরায়েল ইরানের নিরাপত্তা ক্ষতিগ্রস্ত করলে আমিরাতকেও শত্রু বলে গণ্য করা হবে : তেহরান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৮:৪৩ পিএম

ইরানের সামরিক বাহিনীর চিফ অব স্টাফ মেজর জেনারেল মোহাম্মাদ হোসেইন বাকেরি বলেছেন, ইসরাইলের মাধ্যমে যদি ইরানের নিরাপত্তা সামান্যতম ক্ষতিগ্রস্ত হয়, তাহলে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে শত্রু বলে বিবেচনা করা হবে এবং তার দায়ভার আবুধাবিকে নিতে হবে। সম্প্রতি ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করেছে আমিরাত। টেলিভিশনে সম্প্রচারিত এক সাক্ষাৎকারে জেনারেল বাকেরি বলেন, যদিও গত দুই বছর আমিরাত ইরানকে বার বার বার্তা দিয়ে অনুরোধ করেছে যে, সউদি আরবকে যেভাবে দেখে তেহরান সেভাবে যেন আবুধাবিকে না দেখে, তারপরও তারা ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার পদক্ষেপ নিয়েছে। -ফার্স

ইরানের এ শীর্ষ কমান্ডার বলেন, ইসরায়েলের সঙ্গে আমিরাতের সম্পর্ক স্বাভাবিক করার পর সবকিছু পাল্টে গেছে। যার অর্থ হচ্ছে ইসরায়েল এখন আমিরাতে সামরিক ঘাঁটি করবে, গোয়েন্দা ঘাঁটি করবে এবং সাইবার অপারেশন চালাবে। যদি ইসরায়েলিরা এ অঞ্চলে পা রাখে এবং আমাদের নিরাপত্তা ও প্রতিরক্ষা ক্ষতিগ্রস্ত হয় তাহলে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে আমরা ইসরায়েলি ঘাঁটি গড়ার সুযোগদানকারী দেশ হিসেবে গণ্য করব এবং তাদেরকে শত্রু হিসেবেই দেখব। নীলনদ থেকে ফোরাত নদী পর্যন্ত শাসন প্রতিষ্ঠার যে স্বপ্ন দেখে ইসরায়েল সে প্রসঙ্গে জেনারেল বাকেরি বলেন, ইসরায়েল নিজেই তার অস্তিত্ব রক্ষার লড়াইয়ে ব্যস্ত ; যুক্তরাষ্ট্র যদি এক মুহূর্তের জন্য অর্থনৈতিক সমর্থন বন্ধ করে দেয়, তাহলে সে অস্তিত্বহীন হয়ে পড়বে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ