Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

ভারতের সেনাবাহিনীর বেহাল দশা, ত্রুটিপূর্ণ অস্ত্রে ৯৬০ কোটি রুপি ক্ষতি ও ২৭ সদস্যের মৃত্যু

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৫:২৭ পিএম

সংখ্যায় বিশাল হলেও ভারতের সেনাবাহিনীর ভেতরের করুণ অবস্থার চিত্র এবার প্রকাশ্যে এল। সেনাবাহিনীর জন্য হালকা অস্ত্র, গুলি ও বোমা দেশেই তৈরি করে ভারত। তবে তার মান এতই খারাপ যে, ২০১৪ সাল থেকে ‘ত্রুটিপূর্ণ’ গোলাবারুদে নষ্ট হয়েছে প্রায় ৯৬০ কোটি রুপি। মৃত্যু হয়েছে ২৭ সেনার। এক অভ্যন্তরীণ সমীক্ষার পর এমনটাই জানিয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী।

সমীক্ষায় বলা হয়েছে, ‘অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরি বোর্ডে’র (ওএফবি) তৈরি অস্ত্র, গুলি, ও বোমায় থাকা ত্রুটির খেসারত দিতে হয়েছে ফৌজকে। ২০১৪ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত, অর্থাৎ বিগত প্রায় পাঁচ বছরে বিভিন্ন হাতিয়ারের গুলি ও বোমায় ত্রুটি থাকায় প্রায় ৪০০টি দুর্ঘটনা ঘটেছে। এর ফলে মৃত্যু হয়েছে ২৭ জন জওয়ানের। আর্থিক দিক থেকে, ওই সময়সীমায় প্রায় ৬৫৮ কোটি রুপির ত্রুটিপূর্ণ বুলেট নষ্ট করে সেনা। ২০১৬ সালে মহারাষ্ট্রের পুলগাওঁয়ে একটি মাইন বিস্ফোরণ ঘটে। তদন্তে জানা যায় সেটিতে ত্রুটি ছিল। তারপর প্রায় ৩০৩ কোটি রুপির মাইন নষ্ট করে বাহিনী। বিগত কয়েক বছরে যে পরিমাণের টাকা নষ্ট হয়েছে তাতে ১৫৫ মিলিমিটার মিডিয়াম রেঞ্জ আরটিলারি গান বা মাঝারি পাল্লার ১০০টি কামান কেনা যেত।

এদিকে, সেনার রিপোর্টে রীতিমতো প্রশ্নের মুখ পড়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ উদ্যোগ। প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে স্বাবলম্বী হওয়ার ভারতের চেষ্টায় অন্যতম অবদান ওএফবি বা গোলাবারুদ নির্মাণকারী কারখানাগুলির। প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের আওতায় কাজ করা এই ওএফবি’র তৈরি গোলাবারুদের মান নিয়ে এর আগেও প্রশ্ন উঠেছে। এবার খোদ সেনাবাহিনী ক্ষোভপ্রকাশ করায় রীতিমতো জটিল হয়েছে পরিস্থিতি।

উল্লেখ্য, শীতের মরশুম আসছে। এদিকে পূর্ব লাদাখ সীমান্তে চীনের সাথে উত্তেজনা বৃদ্ধি পেয়েছে। তীব্র ঠান্ডায় তাদের মোকাবিলা করতে প্রস্তুত হচ্ছে ভারতীয় সেনা। সাড়ে ১৪ হাজার ফুট উচ্চতায় চরম প্রতিকূল পরিস্থিতিতে ভারতীয় সেনা যুদ্ধের জন্য মোতায়েন করছে ট্যাঙ্ক, যুদ্ধযান। এমনকী, এই সামরিক সজ্জা নিয়ে মহড়াও শুরু হয়ে গিয়েছে। এমন সময়ে যুদ্ধের রসদের মান নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় চঞ্চল্য ছড়িয়েছে প্রতিরক্ষা মহলে। সূত্র: দ্য এশিয়ান এজ।



 

Show all comments
  • Mirza Hossain ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৮:১২ পিএম says : 0
    Thank for a little detail news.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ