Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

‘গণধর্ষনে জড়িত একজন এমসি কলেজ ছাত্র বাকীরা বহিরাগত’ এক প্রেস ব্রিফিং এ শিক্ষামন্ত্রনালয় তদন্ত কমিটি প্রধান

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৭:৪২ পিএম

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধুকে ধর্ষনের ঘটনায় শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটির প্রধান প্রফেসর শাহেদুল কবির চৌধুরী বলেন, করোনা কালে কোন অবস্থাতেই কলেজ ছাত্রাবাস খোলার নির্দেশনা নেই। এছাড়া গণধর্ষনে জড়িত একজন মাত্র কলেজের বর্তমান ছাত্র, বাকি সবাই বহিরাগত, এমন তথ্য জানিয়েছেন শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটির প্রধান প্রফেসর শাহেদুল কবির চৌধুরী। আজ বুধবার বিকেল ৫ টা ১০ মিনিটে কলেজের শিক্ষাবিদ সম্মেলন কক্ষে এ সংক্রান্ত এক প্রেস ব্রিফিং এ একথা জানান তিনি। শুরুতেই এমসি কলেজকে দেশের শীর্ষ কলেজ উল্লেখ করে এ ঘটনার ঘটনার তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করা হয়। এসময় প্রফেসর শাহেদুল চৌধুরী বলেন, কলেজ ব্যবস্থাপনার মধ্যে কোন ত্রুটি আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। করোনা কালের আগে ও পরে কলেজ এবং ছাত্রাবাসের ব্যবস্থাপনা নিয়ে আলাদা আলাদা নির্দেশনা ছিল। এখানে কাদের কি দায়িত্ব ছিল, দায়িত্বে কোন অবহেলা ছিল কিনা এসব নিয়ে সবার সাথে কথা বলেছি আমরা। তিনি বলেন, স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তার সাথে এবং ভিকটিমের সাথেও কথা বলার চেষ্টা করেছি। তদন্তের প্রাথমিক রিপোর্ট বৃহষ্পতিবার শিক্ষা মন্ত্রী বরাবর পেশ করা হবে এবং এক সপ্তাহের মধ্যে পেশ করা হবে পূর্নাঙ্গ রিপোর্ট। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, ১’শ ৪৪ একর জায়গার উপর বিশাল ক্যাম্পাসের নিরাপত্তার জন্য পর্যাপ্ত যা যা প্রয়োজন মনে হয়েছে সেখানে গ্যাপ রয়েছে। হোস্টেল যেভাবে তৈরী সেখানে বহিরাগতরা অনায়াসে প্রবেশ করতে পারে। সেখানে আলোর সংকট, সীমানা প্রচীরের রয়েছে অভাব। প্রসঙ্গত, এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধুকে গণধর্ষনের ঘটনায় গত সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (কলেজ ও প্রশাসন) মো. শাহেদুল খবীর চৌধুরীকে প্রধান করে ৩ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তদন্ত কমিটি দুই দিন সিলেটে অবস্থান করে ঘটনা স্থল, ক্যাম্পাস পরিদর্শন শেষে এক ব্রিফিং করেন আজ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ