Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

৯.৯৯ টাকায় ‘নগদ’ এ ক্যাশ আউট

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১ অক্টোবর, ২০২০, ৫:২৯ পিএম

দেশে প্রথমবারের মতো ১ হাজার টাকার হিসেবে ক্যাশ আউট চার্জ সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে আনল ডাক বিভাগের ডিজিটাল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ’। এখন থেকে ‘নগদ’-এর গ্রাহকদের জন্য ১ হাজার টাকা ক্যাশ আউটে খরচ হবে মাত্র ৯ দশমিক ৯৯ টাকা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন উপলক্ষে ‘নগদ’-এর পক্ষ থেকে সকল গ্রাহকদের জন্য ক্যাশ আউটের এই চার্জ উপহার হিসেবে দেওয়া হয়েছে।

তবে কোনো গ্রাহক যদি অ্যাপ ব্যবহার না করে মোবাইল ফোনের ইউএসএসডি প্রযুক্তি ব্যবহার করে ক্যাশ আউট করেন, তাহলে এই চার্জ হবে এক হাজার টাকায় ১২ দশমিক ৯৯ টাকা।

হ্রাসকৃত এই ক্যাশ আউট চার্জ সুবিধা পেতে গ্রাহককে ২১০০ টাকার ওপরে ক্যাশ আউট করতে হবে। ‘নগদ’ নির্ধারিত এই চার্জের সঙ্গে গ্রাহককে ক্যাশ আউটের ক্ষেত্রে সরকার নির্ধারিত ১৫ শতাংশ হারে কর যোগ হবে।

ক্যাশ আউট চার্জ কমিয়ে আনার ফলে গ্রাহকরা মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসের মাধ্যমে আরও বেশি লেনদেন করতে উৎসাহী হবেন, যা দেশের আর্থিক খাতের লেনদেনের ক্ষেত্রে গতি সঞ্চার করবে এবং সামগ্রিক অর্থনৈতিক উন্নতিতে উল্লেখজনক ভ‚মিকা রাখবে।

‘নগদ’-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভীর এ মিশুক হ্রাসকৃত এই ক্যাশ আউট চার্জ নির্ধারণ বিষয়ে বলেন, সব সময়ই এত বেশি হারে ক্যাশ আউট চার্জের বিরুদ্ধে আমাদের অবস্থান। গত এক দশক ধরে ক্যাশ আউটের যে ফি প্রচলিত রয়েছে (হাজারে ২০ টাকা) সেটি গ্রাহকের ওপর অত্যাচার বলেই আমরা মনে করি। সে কারণে শুরু থেকেই গ্রাহকদের জন্য ‘নগদ’ সর্বনিম্ন ক্যাশ আউট চার্জ অফার করে আসছে।

তানভীর মিশুক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে ‘নগদ’-এর গ্রাহকদের জন্য চমক জাগানো এই অফার ঘোষণা করা হলো। ফলে গ্রাহকের ‘নগদ’ ব্যবহার আগের চেয়ে অনেক সাশ্রয়ী হবে এবং আর্থিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিজিটালাইজেশন প্রক্রিয়াটি তরান্বিত হবে।

এ বিষয়ে সরকার উদ্যোগ নিয়ে সকল মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসের জন্য সর্বোচ্চ ক্যাশ আউট চার্জের একটি সীমা নির্ধারণ করে দিতে পারে। সর্বনিম্ন ক্যাশ আউট চার্জ উপভোগ করার পাশাপাশি ‘নগদ’-এর গ্রাহকরা শুরু থেকেই ‘পি টু পি’ অর্থাৎ সেন্ড মানি লেনদেন করতে পারছেন ফ্রি, যদিও অন্যান্য অপারেটরের ক্ষেত্রে এই লেনদেনের জন্যও গ্রাহককে খরচ গুণতে হয়।

করোনা মহামারির শুরু থেকে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের পাশে থাকতে ‘নগদ’ পাঁচ ধরনের ব্যবসায়ীদের ক্ষেত্রে লেনদেনের ওপরে ক্যাশ-আউট চার্জ হাজারে মাত্র ছয় টাকায় নিয়ে আসে, যা ব্যবসা-বাণিজ্যের মন্দার এই সময়ে ব্যবসায়ীদের ব্যবসায় পরিচালন খরচ কমিয়ে এনেছে।

২০১৯ সালের ২৬ মার্চ বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরুর পর চমৎকার সব সেবার মাধ্যমে এরই মধ্যে ‘নগদ’ নিজেদের দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে। দেড় বছরের এই যাত্রায় সরকারি বেসরকারি নানা উদ্ভাবনী কার্যক্রমের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়েছে রাষ্ট্রীয় সেবা ‘নগদ’।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নগদ

১৬ এপ্রিল, ২০২০
১৭ এপ্রিল, ২০১৯
২ এপ্রিল, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ