Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

বরগুনার অপহরণ মামলার আসামি কুয়াকাটায় আটক

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ৪ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০৯ এএম

বরগুনার এক শিশুকে অপহরণের ঘটনায় এম.এ আজিম নামে এক ব্যক্তিকে পটুয়াখালীর কুয়াকাটার আবাসিক হোটেল গোল্ডেন ইন থেকে আটক করেছে পুলিশ। এসময় অপহৃত শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। 

এ ঘটনায় শিশুটির চাচা আসুতোষ সরকার বাদী হয়ে গতকাল তিনজনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে বরগুনা থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন। মামলার অন্য দুই আসামি হলেন- একই জেলার গৌরী চন্না এলাকার শিবশংকর সেনের ছেলে সুবাস সেন ও মো. ইউসুফ সিকদারের ছেলে মো. ইমরান হোসেন। এরা দু’জনেই পলাতক রয়েছে।
বরগুনা থানার এসআই মো. জাহিদ হোসেন জানান, গত শুক্রবার রাত ৯টার দিকে বরগুনা কলেজ রোড এলাকার বাসুদেব সরকারের ১৪ বছরের শিশু মল্লিকা সরকার প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের বাইরে যায়। এসময় পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী ওঁৎ পেতে থাকা এম.এ আজিমসহ অন্য আসামিরা শিশুটিকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যায়। রাত সোয়া ২টার দিকে কুয়াকাটার হোটেল গোল্ডেন ইনের ৪০১ নম্বর কক্ষে ডায়েরিভুক্ত করে অবস্থান করেন। এ খবর পেয়ে কলাপাড়ার মহিপুর থানার পুলিশ ওই হোটেলের কক্ষ থেকে আজিমসহ শিশুটিকে রাত তিনটার দিকে উদ্ধার করে। গতকাল আটক এম.এ আজিমকে বরগুনার আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। অপহৃত শিশুটিকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান বরগুনা থানার এসআই মো. জাহিদ হোসেন।
এ ব্যাপারে মহিপুর থানার ওসি মো. মনিরুজ্জামান জানান, অপহৃত শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় বরগুনা থানায় অপহরণ মামলা হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। এদিকে, কুয়াকাটা হোটেল গোল্ডেন ইন’র ম্যানেজার মো. রেদোয়ান জানান, রাত ২টা ১৫ মিনিটের সময় তারা হোটেলের ৪০১ নম্বর কক্ষে ডায়েরি করে অবস্থান করেন। তবে মেয়েটির প্রকৃত নাম গোপন করে মোসা. জান্নাতুল দেয়া হয় বলে তিনি উল্লেখ করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কুয়াকাটায়-আটক
আরও পড়ুন