Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৬ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

টেকনাফে ৪ ডাকাত আটক

অস্ত্র-গোলাবারুদ উদ্ধার

কক্সবাজার ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ৪ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০৯ এএম

সাম্প্রতিক সময়ে টেকনাফের পাহাড়গুলোতে ডাকাতি বৃদ্ধি পেয়েছে। এসব ডাকাত দলে রয়েছে স্থানীয় ডাকাত ও রোহিঙ্গা দুস্কৃতিকারীরা। টেকনাফের হ্নীলা উলুমারী এলাকা থেকে ডাকাত দলের ৪ সদস্যকে আটক করেছে বিজিবি। আটককৃতরা হল- উলুমারী গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের ছেলে নুরুল আমিন, মৃত মো. শফির ছেলে আনোয়ার হোসেন, মৃত রুহুল আমিনের ছেলে জাফর আলম ও রঙ্গিখালী গ্রামের মৃত মোজাফফর আহমেদের ছেলে নজির আহম্মদ।
গত শুক্রবার রাত থেকে গতকাল ভোর পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এ সময় তাদের নিকট থেকে ৬টি দেশিয় অস্ত্র, ১০ রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও অন্যান্য সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে বলে দাবি বিজিবির। ডাকাতির প্রস্তুতিকালে চারজনকে আটক করা হলেও আরও ৬-৭ জন পালিয়ে গেছে বলে জানিয়েছে বিজিবি । টেকনাফ ব্যাটালিয়নের (২ বিজিবি) অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান জানান, উলুমারি গ্রামের একটি সংঘবদ্ধ ডাকাতদল আগ্নেয়াস্ত্রসহ ডাকাতি করার উদ্দেশে ডাকাত দলের সদস্য নুরুল আমিনের বাড়িসহ ৪টি বাড়িতে অবস্থান করে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে এমন সংবাদে বিজিবির একটি দল অভিযান চালায়।
গত শুক্রবার রাত থেকে সেখানে অভিযানের সময় বাড়িগুলো চার দিক থেকে ঘেরাও করে ফেলা হয়। বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে নুরুল আমিনের পুত্র জাফর আলমের ঘরসহ আরও ২টি ঘর থেকে ৬-৭ ডাকাত পালিয়ে যায়। তবে টহল দল নুরুল আমিনের বাড়ি থেকে ৪ জনকে আটক করতে সক্ষম হয়।
পরে বাড়ি তল্লাশি করে ৬টি দেশে তৈরি এক নলা বন্দুক, ১০ রাউন্ড তাজা কার্তুজ, ৯ রাউন্ড গুলির খোসা, চার রাউন্ড রাইফেলের অ্যামুনেশন, চার রাউন্ড এলএমজি অ্যামুনেশন, চার রাউন্ড প্যারাসুট ফ্লেয়ার, একটি পুলিশ বেল্ট ও একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। আটকদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান লে. কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ