Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

দেশমাতৃকার প্রয়োজনে সেনাবাহিনীতে দলে দলে যোগ দিচ্ছে আর্মেনীয় নারীরা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ অক্টোবর, ২০২০, ২:১১ পিএম

বিতর্কিত নাগোরনো-কারাবাখ অঞ্চল নিয়ে ভয়াবহ যুদ্ধ শুরু হয়েছে আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার মধ্যে। দক্ষিণ ককেশাসের বিরোধপূর্ণ এলাকা নাগোর্নো-কারাবাখকে কেন্দ্র করে কয়েক দিন ধরে তীব্র লড়াই চলছে। কোনো পক্ষই ছাড় দিতে নারাজ। এমন পরিস্থিতিতে দেশের এই দুর্দিনে পিছিয়ে নেই আর্মেনিয়ার নারীরাও। দেশমাতৃকার প্রয়োজনে সেনাবাহিনীতে দলে দলে যোগ দিচ্ছে তারা। খবর ডেইলি সাবাহ’র।
জানা গেছে, সেনাবাহিনীতে যোগ দিতে বৃহস্পতিবার কয়েক ডজন নারী সেনাবাহিনীর একটি রিক্রুটমেন্ট সেন্টারে হাজির হন। রাজধানী ইয়েরেভানে ওই রিক্রুট সেন্টারে কয়েকজন নারীর সাক্ষাৎকার নেয় স্থানীয় গণমাধ্যম। ওই নারীরা সেনাবাহিনীতে যোগ দিতে সেন্টারটিতে হাজির হয়েছিলেন।
একজন নারী বলেন, যখন যুদ্ধ শুরু হয় তখন আমরা প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করি, যাতে ফ্রন্টলাইনে যেতে পারি। আমি এটা ভেবে আনন্দিত যে এমন একটা সুযোগ আমি পেয়েছি। আমি নিশ্চিত যে আর্মিতে নারী প্রয়োজন।
পুলিশের একজন লে. কর্নেল হারুতউন হাকোবইয়ান বলেছেন, ইতোমধ্যেই ৯৮ জন নারীকে ফ্রন্টলাইনে পাঠানো হয়েছে। ফ্রন্টলাইনে যেতে আরও অনেক নারী আবেদন করছে।
তিনি বলেন, আরো প্রায় ৪০০ নারীকে মোতায়েন করা হবে। এখন আমরা পরের ব্যাচ পাঠানোর জন্য মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনের জন্য অপেক্ষা করছি।
টানা এক সপ্তাহের সংঘর্ষের পর আর্মেনিয়ার দখল থেকে মাদাগিজ শহরের পর নিজেদের আরো সাতটি এলাকা মুক্ত করেছে আজারবাইজানের সেনাবাহিনী।
এদিকে গতকাল শনিবার আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম অ্যালিয়েভ টুইটার বার্তায় জানান, আজারবাইজানের সেনাবাহিনী মুহুর্মুহু আক্রমণের মধ্য দিয়ে শত্রুদের হাত থেকে নাগার্নো কারাবাখের টের্টার জেলার তালিশ গ্রাম, জাব্রাইল জেলার মেহদিলি, চক্সিরলি, আশাগি ম্যারালিয়ান, শেবি, গাইজাগ ও ফিজুলি জেলার আশাগি আবদুররহমানিয়ালি গ্রাম মুক্ত করেছে।
এর আগে প্রেসিডেন্ট অ্যালিয়েভ ঘোষণা করেছিলেন যে, মাদাগিজ শহরে পতাকা উত্তোলন করেছে আজারবাইজানের সেনারা। তিনি বলেন, আজ আজারবাইজানের সেনাবাহিনী মাদাগিজের ওপরে আমাদের পতাকা উত্তোলন করেছে। মাদাগিজ এখন আমাদের। খবর ডেইলি সাবাহ’র।

 



 

Show all comments
  • MD. AMINUL ISLAM ৪ অক্টোবর, ২০২০, ২:৪৯ পিএম says : 0
    দু'পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালে হঠাৎ সুন্দরী নারীদের উপস্থাপন করা হলো কেন?......
    Total Reply(1) Reply
    • ৪ অক্টোবর, ২০২০, ৪:০৩ পিএম says : 0
  • Jack Ali ৪ অক্টোবর, ২০২০, ৮:৩৭ পিএম says : 0
    May Allah defeat Armanian Barbarian.
    Total Reply(0) Reply
  • মহিউদ্দিন ৪ অক্টোবর, ২০২০, ১১:২৯ পিএম says : 0
    আজারবাইজানের সেনাবাহিনীর জন্য শুভকামনা। এগিয়ে যাক দেশ মাতৃভূমিকে হায়েনামুক্ত করতে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ