Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

রামগতিতে বিধবা নারীকে গণধর্ষণ গ্রেপ্তার-২

রামগতি(লক্ষ্মীপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৫ অক্টোবর, ২০২০, ৫:২৪ পিএম

লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে এক বিধবা নারী(৩৮)কে গণধর্ষণের অভিযোগে দুই বখাাটে যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার রাতে উপজেলার চরপোড়াগাছা এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। তারা হলো- ওই এলাকার ছৈয়দ আহমদের ছেলে মো. জামাল (২১) ও আবুল কালামের ছেলে মো. সোহেল (২০)। এর আগে শনিবার রাতে গ্রেপ্তারকৃত ওই দুই বখাটেসহ কয়েকজন মিলে ওই নারীকে ঘর থেকে বাহিরে নিয়ে ধর্ষণ করে হাত-পা ও চোখ-মুখ বেঁধে বসতঘরের পেছনে পেলে রেখে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ওই নারীকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ওই নারীর স্বামী মারা যাওয়ায় পর থেকে সে বাবার বাড়িতে একাই বসবাস করে আসছেন। এরই সুবাদে স্থানীয় কয়েকজন যুবক দীর্ঘদিন ধরে তাকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। এ নিয়ে কিছু দিন আগে বাগি¦তন্ডার জের ধরে একটি মারামারির ঘটনা ঘঠলে ওই নারী গুরুতর আহত হয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে আদালতে একটি মামলাও হয়েছে। এতে ক্ষীপ্ত হয়ে তারা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে শনিবার রাতে দরজা ভেঙে ওই নারীর ঘরে প্রবেশ করে। ওই সময় তারা জোরপূর্বক গণধর্ষণ করে রশি দিয়ে হাত-পা এবং গামটেপ দিয়ে মুখ ও চোখ বেঁধে ঘরের পেছনে রেখে পালিয়ে যায়। রোববার সকালে তার ভাই স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে ওই বাড়ির বসতঘরের পেছনে তার বোনকে হাত-পা ও চোখ-মুখ বাঁধা অবস্থায় দেখতে পান। পরে থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে ওই নির্যাতিতা নারী বাদি হয়ে ধর্ষনের অভিযোগে একটি মামলা করলে পুলিশ দুই আসামীকে গ্রেপ্তার করেন। তার স্পর্শকাতর স্থানসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় নির্যাতনের চিহ্ন রয়েছে।

রামগতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সোলাইমান জানান, বিধবা ওই নারীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ধর্ষণের অভিযোগে মামলায় পুলিশ দুই আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন