Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

বরাদ্দ ছাড় করতে ঘুষ দাবি প্রমাণ দেব, দায়িত্ব নিয়েই কথা বলেছি -চসিক মেয়র

প্রকাশের সময় : ১৩ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম | আপডেট : ৭:২৪ এএম, ১৩ আগস্ট, ২০১৬

চট্টগ্রাম ব্যুরো : বেঁধে দেয়া সময়ের মধ্যেই স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের চিঠির জবাব দেবেন চট্টগ্রামের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। তিনি বলেন, অবশ্যই প্রমাণ দেব, আমি কি রাস্তার লোক, দায়িত্ব নিয়েই কথা বলেছি। ৭ দিনের মধ্যেই চিঠির জবাব দেব। ‘ঘুষ না দেওয়ায়’ চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে উন্নয়ন বরাদ্দ কম দেওয়া হয়েছেÑ মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের এমন অভিযোগের প্রমাণ চেয়ে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় মেয়রকে চিঠি দেয়। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সরকার বিভাগের ওই চিঠিতে মেয়রকে এক সপ্তাহের মধ্যে তার অভিযোগের প্রমাণ দিতে বলা হয়েছে।
গতকাল (শুক্রবার) বিকেলে নগরীর মুসলিম ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠান শেষে মন্ত্রণালয়ের চিঠি প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের মেয়র আ জ ম নাছির বলেন, চিঠি দেয়ার বিষয়টি শুনেছি। আমি আজ (শুক্রবার) সকালে ঢাকা থেকে ফিরেছি। আজ অফিস বন্ধ। কালও বন্ধ। খোলার দিন অফিসে যাব। গিয়ে দেখব। দেখে অফিশিয়ালি যেটি করার, সেটি করব। সাত দিনের মধ্যেই জবাব দেব।
ঘুষ চাওয়ার অভিযোগের পক্ষে প্রমাণ আছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন সাংবাদিকদের বলেন, সবই তো আছে। আমি কি রাস্তার লোক? আমি দায়িত্ব নিয়েই কথা বলেছি এবং দায়িত্ব নিয়েই কথা বলব।
বুধবার চট্টগ্রামে এক সভায় আ জ ম নাছির বলেন, ‘দাবি মত’ কর্মকর্তাদের ঘুষ দিলে যেখানে ৩০০ থেকে ৩৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ পাওয়া যেত, সেখানে তা না দেয়ায় এসেছে মাত্র ৮০ কোটি টাকা। আমাকে বলা হল- করপোরেশনের জন্য যত টাকা চাই দেয়া হবে থোক বরাদ্দ হিসেবে, তবে তার জন্য পাঁচ শতাংশ করে দিতে হবে। সাম্প্রতিক এক ঘটনা তুলে ধরে মেয়র ওই অনুষ্ঠানে বলেন, যুগ্ম সচিব পদমর্যাদার এক কর্মকর্তা সিটি করপোরেশনের প্রকল্প পাস করার জন্য একটি নতুন পাজেরো গাড়ি চেয়েছিলেন। গণমাধ্যমে মেয়রের এমন বক্তব্য প্রকাশের পর মন্ত্রণালয় থেকে মেয়রকে চিঠি দেয়া হয়।
মেয়রের কাছে দেয়া চিঠিতে বলা হয়েছে, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রকল্প অনুমোদন এবং বরাদ্দ পেতে মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘুষ চান; মন্ত্রণালয়ের জনৈক যুগ্ম-সচিব পদমর্যাদার কর্মকর্তা আপনার কাছে একটি নতুন পাজেরো জিপ চেয়েছেন, ৫ শতাংশ ঘুষ দিলে আপনি ৮০ কোটির পরিবর্তে ৩০০ কোটি টাকা বরাদ্দ পেতেন ইত্যাদি তথ্য উল্লেখ করে গত ১০ আগস্ট চট্টগ্রাম থিয়েটার ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন মর্মে ১১ আগস্ট বিভিন্ন পত্রিকায় খবর প্রকাশিত হয়েছে। আপনার আনীত এ অভিযোগসমূহ গুরুতর। এতে মন্ত্রণালয় তথা সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণœ হয়েছে- যার প্রমাণ প্রদান আবশ্যক।
এ পরিপ্রেক্ষিতে কোন কর্মকর্তা কোথায় কখন আপনার কাছে ঘুষ দাবি করেছেন, কে কোথায় কখন পাজেরো জিপ চেয়েছেন, কোন প্রকল্পের অর্থ ছাড়ে কোন কর্মকর্তা জটিলতার সৃষ্টি করেছেন, তা সুনির্দিষ্টভাবে উল্লেখপূর্বক উপযুক্ত প্রমাণ আগামী সাত দিনের মধ্যে মন্ত্রণালয়ে দাখিল করার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হল। চিঠিতে স্বাক্ষর করেছেন স্থানীয় সরকার বিভাগের নগর উন্নয়ন শাখার অতিরিক্ত সচিব জ্যোতির্ময় দত্ত।



 

Show all comments
  • Habib ১৩ আগস্ট, ২০১৬, ১১:৪৭ এএম says : 0
    Sabbas, Kothay dom ase
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বরাদ্দ ছাড় করতে ঘুষ দাবি প্রমাণ দেব
আরও পড়ুন