Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯, ০৫ চৈত্র ১৪২৫, ১১ রজব ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

রিও’তে ক্যারিয়ার সেরা টাইমিং সাগরের

প্রকাশের সময় : ১৩ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস রিপোর্টার : রিও অলিম্পিকে ক্যারিয়ার সেরা টাইমিং করলেন বাংলাদেশের কৃতী সাঁতারু মাহফিজুর রহমান সাগর। বৃহস্পতিবার রিও’র অলিম্পিক অ্যাকোয়াটিক সেন্টারে পুরুষদের ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলে পাঁচ নম্বর হিটের সাত নম্বর লেনে সাঁতার কাটেন সাগর। নিজ ক্যারিয়ার সেরা ২৩.৯২ সেকেন্ড সময় নিয়ে সাঁতার শেষ করে পাঁচ নম্বর হিটে পঞ্চম স্থান পান তিনি। এর আগে সাগরের সেরা টাইমিং ছিল ২৪:০২ সেকেন্ড। এদিকে গতকাল নারীদের ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলে ২৯.২৯ সেকেন্ড সময় নিয়ে ৬৯তম স্থান পেয়েছেন বাংলাদেশের সোনিয়া আক্তার টুম্পা। এই ইভেন্টে ২৪.২৩ সেকেন্ড সময় নিয়ে প্রথম হয়েছেন ডেনমার্কের পারনিল বøুম।
লন্ডন এবং রিও, টানা দুই অলিম্পিকে ওয়াইল্ড কার্ড পেয়ে খেলার সুযোগ পান মাহফিজুর রহমান সাগর। এবারের অলিম্পিকে খেলতে যাওয়া বাংলাদেশের সাত ক্রীড়াবিদের মধ্যে কেবল তারই রয়েছে টানা দুই অলিম্পিকে খেলার অভিজ্ঞতা। অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়েছেন লাল-সবুজের এই সাঁতারু। লন্ডন অলিম্পিকের চেয়ে ভালো করেছেন রিওতে। ২০১২ লন্ডন অলিম্পিকে ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলের হিটে ২৪.৬৪ সেকেন্ড সময় নিয়েছিলেন সাগর। পেয়েছিলেন ৩৯তম স্থান। এবারও একই ইভেন্ট। তাই প্রত্যাশা ছিল ভালো ফল করা। প্রত্যাশা পূরণ করতে পেরেছেন তিনি। রিও’র অলিম্পিক অ্যাকোয়াটিক সেন্টারে পাঁচ নম্বর হিটে ২৩.৯২ সেকেন্ড সময় নিয়ে আটজনের মধ্যে পঞ্চম হলেও সব মিলিয়ে তার ইভেন্টে ৮৫ জনের মধ্যে ৫৪তম স্থান পান সাগর। তার পরে সাঁতার শেষ করেন ঘানার আবেকু জ্যাকসন (২৪.৩০), কসোভোর লুম ঝাভেলি (২৪.৫৩) ও মঙ্গোলিয়ার দুলগুন বাতসেখান (২৪.৯০ সেকেন্ড)। নিজ ইভেন্ট শেষ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সাগর বলেন, ‘রিও’তে নিজের টাইমিংয়ে উন্নতি করতে পেরেছি এতেই আমি খুশি। তবে অলিম্পিকে খেলতে আসার আগে দেশে যদি প্রশিক্ষণের জন্য পর্যাপ্ত সুযোগ-সুবিধা পেতাম তাহলে আরো ভালো করতে পারতাম।’ এই হিট থেকে সেমিফাইনালে গেছেন সেনেগালের আবদুল কাদরি এমবায়ে (২৩.৬৬ সেকেন্ড) এবং ফিজির মেলি মালানি (২৩.৮৮ সেকেন্ড)।
রিও অলিম্পিক সাঁতারে ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলের পুরুষ বিভাগে মোট ১১টি হিটের প্রথম হওয়া এবং বাকি সেরা পাঁচ টাইমিংয়ের সাঁতারুরা সাঁতরাবেন সেমিফাইনালে। পরে সেখান থেকে আটজন লড়বেন পদকের জন্য।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন