Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

বিএনপি মেয়র প্রার্থীর নির্বাচনী ইসতেহার ঘোষণা

চাঁদপুর পৌরসভাকে আধুনিক ও যুগোপযোগী নগরী গড়ে তোলার অঙ্গীকার

চাঁদপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৬ অক্টোবর, ২০২০, ১২:১৫ পিএম

চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থী আক্তার হোসেন মাঝি(ধানের শীষ) নির্বাচনী ইসতিয়ার ঘোষনা করেছেন। সোমবার(৫ অক্টোবর) রাতে শহরের বিপনীবাগে ধানের শীষ মার্কার নির্বাচনী কার্যালয়ে নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করা হয়। আগামী ১০ অক্টোবর শনিবার ইভিএম পদ্ধতিতে চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

নির্বাচনী ইসতিয়ারে বিএনপি মনোনিত প্রার্থী আক্তার হোসেন মাঝি বলেন, শতঊর্ধ্ব চাঁদপুর পৌরসভার উন্নয়নে আমি অলীক স্বপ্নে বিশ্বাসী নই, বাস্তব স্বপ্ন পূরনে বিশ্বাসী । তিনি শপথ ও অঙ্গীকার করে বলেন, আমি দূর্নীতি করব না এবং কাউকে দূর্নীতি করতে দেবনা। দলমত বর্ণ নির্বিশেষে সবার প্রতি সমান দৃষ্টিভঙ্গী নিয়ে কাজ করব। চাঁদপুর পৌরসভার পথে ঘাটে রাস্তায় কোনো পানি জমতে দেবনা। জলাবদ্ধতা নিরসন করব। পৌরসভার ছোট বড় সকল রাস্তা উন্নয়নের আওতায় আনা হবে। পৌর এলাকায় বিদ্যুতের লোড শেডিং হবে না। বাসস্ট্যান্ড থেকে বাবুরহাট পর্যন্ত ডিভাইডার দিয়ে ওয়ানওয়ে রাস্তা তৈরি করা হবে। যানজট নিরসনের লক্ষে দ্রুত গতিতে পৌরসভার পূর্ব মূখী ৩টি রাস্তা সংস্কারসহ প্রয়োজনে আরো নতুন রাস্তা নির্মান করা হবে।
শহরের সৌন্দর্য বৃদ্ধি ও যানজট নিরসনের জন্য ৫নং ঘাট থেকে লন্ডন ঘাট পর্যন্ত ডাকাতিয়া নদীর পাড় দিয়ে নতুন রাস্তা তৈরী করা হবে।

পৌরসভার প্রতি ইঞ্চি ভূমি উন্নয়নের আওতায় আনা হবে। দিনের বেলা কোন ময়লা আবর্জনা রাস্তায় থাকতে দেয়া হবে না এবং নিজে পরিচ্ছন্নতা কর্মীর মত কাজ করবো। কোন শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের পাশে ডাষ্টবিন থাকবে না।

শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সড়কের লেকের সৌন্দর্য বর্ধন করা হবে। প্রতিটি ওয়ার্ডে পরিকল্পিতভাবে কাঁচা বাজার প্রতিষ্ঠা করা হবে। পৌরবাসীর জন্য ২৪ ঘন্টা বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ নিশ্চিত করা হবে। পৌরবাসীর জন্য একটি বিনোদন পার্ক, ২টি শিশু পার্ক তৈরি করা করা হবে এবং চাঁদপুর শহরকে আধুনিক পর্যটন-বাসযোগ্য নগরী হিসেবে গড়ে তোলা হবে। পৌরসভার পূর্ব দিকে একটি নতুন কবরস্থান ও পুরানবাজারে একটি শশ্মান নির্মান করা হবে। পুরাতন কবরস্থানগুলো সংস্কার করা হবে। পুরানবাজারে দাতব্য চিকিৎসালয়কে আধুনিক হাসপাতালে পরিনত করা হবে এবং পূর্বাঞ্চলে আরো একটি পৌর আধুনিক চিকিৎসালয় প্রতিষ্ঠা করা হবে। বিভিন্ন জায়গায় পাবলিক টয়লেট নির্মানসহ মাদকমুক্ত চাঁদপুর শহর গড়ে তোলা হবে।
অপরিকল্পিতভাবে অবৈধ বালু কাটা বন্ধ করে চাঁদপুর শহরকে মেঘনার করাল গ্রাস থেকে রক্ষা করা হবে। যাত্রীসেবার মান উন্নয়নের জন্য চাঁদপুর পৌর বাসস্ট্যান্ডের আধুনিকায়ন করা হবে। পানির বিল, হোল্ডিং ট্যাক্স ও যাবতীয় বিল নিজ নিজ এলাকায় ব্যাংকে অথবা পৌরসভার নিজস্ব অ্যাপসের মাধ্যমে জমা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। জাতীয়তা,চারিত্রিক নাগরিক, জন্ম মৃত্যু এবং ওয়ারিসসহ অন্যান্য সনদপত্র প্রত্যেক ওয়ার্ড কাউন্সিলরের মাধ্যমে সরবরাহ করা হবে।
পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডে আইসিটি কেন্দ্র স্থাপন করা হবে। পৌরসভার অন্তর্গত প্রত্যেকটি স্কুল ও পাঠাগার যুগোপযোগী তথ্যপ্রযুক্তি কেন্দ্রে পরিণত করা হবে। বেকার সমস্যা সমাধানের জন্য শিল্প-কারখানা ও শিশু পার্ক স্থাপনের শিল্প উদ্যোক্তাদের সহায়তা দিয়ে উৎসাহিত করা হবে। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলো চালু করার জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।
শিক্ষিত বেকার যুবকদের কর্মসংস্থানের জন্য একটি আইটি ট্রেনিং স্কুল স্থাপন করার উদ্যোগ নেওয়া হবে। চাঁদপুর পৌর এলাকার সম্পূর্ণভাবে সিসি ক্যামেরা, ওয়াইফাই জোন এর আওতায় আনা হবে।

ধানের শীষের প্রার্থী আক্তার হোসেন মাঝে নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণাকালে উপস্থিত ছিলেন ,চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কাজী শাহাদাত, ভারপ্রাপ্ত সভাপতি গিয়াসউদ্দিন মিলন, সাধারন সম্পাদক এ এইচ এম আহসান উল্লাহ, সাবেক সভাপতি শরীফ চৌধুরী, ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী, সাবেক সাধারন সম্পাদক সোহেল রুশদী, সাংবাদিক মাহবুবুর রহমান সুমন,আব্দুর রহমান,তালহা জুবায়ের,আল ইমরান শোভন, কে এম মাসুদ প্রমুখ।

জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডঃ সলিম উল্যা সেলিমের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম আহ্বায়ক মুনির চৌধুরীর পরিচালনায় এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম আহ্বায়ক দেওয়ান মোঃ সফিকুজ্জামন, মাহবুব আনোয়ার বাবলু, ফেরদৌস আলম বাবু,সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক হাজী মোশারফ হোসাইন, জসীম উদ্দীম খান বাবুল প্রমুখ।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পৌরসভা নির্বাচন


আরও
আরও পড়ুন