Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

সীমান্ত উত্তেজনার মধ্যেই মুখোমুখি হচ্ছেন মোদি-জিনপিং

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ অক্টোবর, ২০২০, ৫:৩৭ পিএম

লাদাখে সীমান্ত উত্তেজনার মধ্যেই আগামী ১৭ নভেম্বর ব্রিকস (বিআরআইসিএস) শীর্ষ সম্মেলনে বৈঠকে বসতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। গালওয়ানে সংঘর্ষের পর এই প্রথম মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন দুই রাষ্ট্রনেতা। তবে করোনা পরিস্থিতির কারণে এই বৈঠক হবে ভার্চুয়াল।

২০১৪ সালের পর থেকে মোদি-জিনপিং বৈঠক হয়েছে ১৮ বার। তার মধ্যে দু’বার তাদের বৈঠক হয় ২০১৮ সালে উহানে ও ২০১৯ সালে মামাল্লাপুরমে। ২০১৯ সালে দ্বিতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পরে নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বিশকেকের এসসিও শীর্ষ বৈঠকের সময় সাক্ষাৎ হয় শি জিনপিংয়ের। এরপর জিনপিং ভারতে এসেও মোদির সঙ্গে দেখা করেন। ব্রিকস শীর্ষ বৈঠকে যোগ দিতে এর আগে দুই রাষ্ট্রনেতা একে অপরের দেশেও গিয়েছেন। ২০১৭ সালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি গিয়েছিলেন শিয়ামেনে। তার আগে ২০১৬ সালে জিনপিং এসেছিলেন গোয়ায়।

এবারের ব্রিকস শীর্ষ বৈঠকে সংগঠনের সদস্য দেশগুলির মধ্যে বন্ধুত্ব, আন্তর্জাতিক স্থিতিশীলতা ও নিরাপত্তার বিষয়ে আলোচনা হওয়ার কথা। পারস্পরিক সহযোগিতার মধ্যে দিয়ে জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন করাই এই বৈঠকের লক্ষ্য বলে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে। বিবৃতিতে আরও জানানো হয়েছে, মূলত তিনটি বিষয় শান্তি ও সুরক্ষা, অর্থনীতি এবং মানুষের মধ্যে সাংস্কৃতিক বিনিময় নিয়ে কথা বলবেন পাঁচটি দেশের প্রতিনিধিরা।

বিশ্বব্যাপী অতিমারীর কথা মাথায় রেখে এবারের বৈঠক হবে ভার্চুয়াল। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মিলিত হবেন রাষ্ট্রনেতারা। মনে করা হচ্ছে এই বৈঠকে ভারত-চিন সীমান্ত উত্তেজনার প্রসঙ্গ উঠতে পারে। সূত্র: হিন্দুস্থান টাইমস।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত-চীন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ