Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৬ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

দক্ষিণ কোরিয়ার সহযোগিতা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলাদেশিদের ভিসা প্রক্রিয়া সহজিকরণ

কূটনৈতিক সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৭ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০৩ এএম

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন ভিসা প্রক্রিয়া সহজ করার জন্য দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী কং কিউং-ওয়া এর সহযোগিতা চেয়েছেন। কোভিড-১৯ মহামারির শুরুতে বাংলাদেশে ফিরে আসা শ্রমিক ও শিক্ষার্থীরা তাদের কাজ এবং পড়াশোনায় যাতে ফিরে যেতে পারেন সে জন্যই পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ সহযোগিতার আহবান জানান।
মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ড. এ কে আবদুল মোমেন গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনে এ কথা বলেন। দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রী কোভিড-১৯ মহামারি, দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা, বাংলাদেশি কর্মী ও শিক্ষার্থীদের কল্যাণসহ দ্বিপক্ষীয় আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক বিষয়ে আলোচনা করেন। বিদ্যমান দুর্দান্ত দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের সম্ভাবনা উপলব্ধি করতে তারা একসঙ্গে কাজ করতে সম্মত হন।

আটকাপড়া শ্রমিক ও শিক্ষার্থীদের দুর্দশার বিবরণ দিয়ে ড. মোমেন ইপিএস কর্মী ও শিক্ষার্থীদের প্রত্যাবর্তনের সুবিধার্থে কোরিয়ান মন্ত্রীর সমর্থন চান। তিনি দক্ষিণ কোরিয়াকে একটি বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠার জন্য আমন্ত্রণ জানান যা কোরিয়ার নিয়োগকারীদের প্রয়োজন অনুসারে বাংলাদেশি কর্মীদের প্রশিক্ষণ দিতে পারে। মন্ত্রী কং এই ধারণাকে স্বাগত জানিয়েছেন এবং ভিসার বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাসও দেন।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন কোভিড-১৯ বিস্তার রোধে দক্ষিণ কোরিয়ার কার্যকর পদক্ষেপের প্রশংসা করেন এবং মহামারি মোকাবিলায় আরও বেশি সহযোগিতা করার আহ্বান জানান। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে যে উদ্যোগ নিয়েছিল তারও প্রশংসা করেন। ড. মোমেন বর্তমান রোহিঙ্গা পরিস্থিতি সম্পর্কে কিউং-ওয়াকে অবহিত করেন। কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রোহিঙ্গা সংকট নিরসন এবং রাখাইন রাজ্যে থেকে বাস্তুচ্যুত হওয়া এক মিলিয়নেরও বেশি নাগরিককে দ্রুত প্রত্যাবর্তনের লক্ষ্যে কাজ করার আশ্বাস দেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ