Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৬ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

নারায়ণগঞ্জে বহিস্কৃত হচ্ছেন জেলা ছাত্রলীগের দুই নেতা

নারায়ণগঞ্জ থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৭ অক্টোবর, ২০২০, ২:৫৯ পিএম

জাল ওকালতনামা ও জামিননামা বিক্রির অভিযোগে মামলার আসামী দুই ছাত্রলীগ নেতাকে বহিষ্কার করা হবে বলে জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগ। এমনটাই জানিয়েছেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আজিজুর রহমান বলেন, ঘটনা জানার পর আমরা কেন্দ্রীয় সভাপতির কাছে তাদের বহিষ্কারের জন্য আবেদন করেছি। তবে এখনো বহিষ্কারের জন্য কোন নির্দেশনা আসে নাই। তবে যারা মন থেকে রাজনীতি করে বঙ্গবন্ধুর চেতনাকে ধারন করে, তারা অপরাধ করতে পারে না। আর একটা কমিটিতে কে, কোথায়, কখন, কি করে সেটাতো প্রতিনিয়ত দেখার সুযোগ থাকে না। তবে অপরাধ যে করুক তাকে ছাড় দেয়া হবে না। যদি আমিও অপরাধ করি, তাহলে আমাকেও ছাড় দেয়া হবে না।
জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসমাঈল রাফেল বলেন, আমাদের লিখিত অভিযোগ নিয়ে আলোচনা হবে। তারপর খুব শীঘ্রই তাদের বহিষ্কার করে দেয়া হবে। তাদের ব্যক্তিগত অপরাধ ছাত্রলীগ নেবে না। থানা পর্যায়ের যে ছাত্রলীগ নেতারা আছে, তারা আমাদের অধীনে। তবে আপরাধকে ছাড় দেয়া হবে না। সে ছাত্রলীগ করুক বা না করুক, অপরাধের সাজা তাকে পেতেই হবে।

উল্লেখ্য, গত সোমবার (৫ অক্টোবর) জেলা আদালত পাড়া সংলগ্ন উকিল রোডের প্রমিস ফটোষ্ট্যান্ট নামে প্রতিষ্ঠানে জেলা আইনজীবী সমিতি নির্ধারিত ওকালতনামা, জামিননামা ও কোর্ট ফি জাল করে বিক্রির অভিযোগ উঠে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৫০টি জাল ওকালতনামা, ৫০টি জাল জামিননামা ও ৬৪০টি জাল স্ট্যাম্প উদ্ধার করে। এ ঘটনায় অভিযুক্তরা হলেন- জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাইসুল আহম্মেদ রবিন ও সোহানুর রহমান শুভ্র। অভিযানে রবিনকে পুলিশ আটক করলেও সোহানুর রহমান শুভ্র ওরফে মিরাজ পালিয়ে যায়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বহিষ্কার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ