Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সংঘর্ষের ঘটনায় ৫ মামলা দায়ের, ১২ জন আটক

কক্সবাজার ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৮ অক্টোবর, ২০২০, ২:৩২ পিএম

উখিয়ার কুতুপালং ক্যাম্পে কয়েকদিন ধরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে রোহিঙ্গাদের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে ৮ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় এ পর্যন্ত ৫টি মামলা দায়ের হয়েছে। এতে জড়িত থাকার অভিযোগে ১২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ ।

উখিয়ার থানার ওসি মোঃ সঞ্জুর মোরশেদ জানিয়েছেন, গত ১৫ দিন ধরে কুতুপালং ক্যাম্পে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের বিবাদমান দুইটি গ্রুপ বিভিন্ন সময়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

এতে বুধবার পর্যন্ত ৮ জন নিহত এবং অনেকেই আহত হয়েছে। এ সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ৫টি মামলা দায়ের করেছে। পরে অভিযান চালিয়ে এ পর্যন্ত ১২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তিনি জানান, ক্যাম্পের পরিস্থিতি এখন শান্ত ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

এদিকে বুধবার রাতে কুতুপালং নিবন্ধিত রোহিঙ্গা ক্যাম্পের সি-ব্লকে দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে ৮/১০টি বসত ঘর পুড়ে যায় বলে জানিয়েছে অতিরিক্ত ত্রাণ ও শরণার্থী প্রত্যাবাসন কমিশনার মোঃ সামছু-দৌজা নয়ন।

তিনি জানিয়েছেন, রাতে আগুন লাগার খবরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মিরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিয়ন্ত্রণে আনায় বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি থেকে রক্ষা পাওয়া গেছে।

তিনি বলেন, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে রোহিঙ্গাদের মধ্যে বিবাদমান দুইপক্ষের যে কেউ আগুন লাগাতে পারে।

এদিকে বুধবার বিকালে কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে যান পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মোঃ আনোয়ার হোসেন। এর পর থেকে পুলিশসহ যৌথ বাহিনী ক্যাম্পের অভ্যন্তরে টহল জোরদার করেছে।

পাশাপাশি সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারে আইন-শৃংখলা বাহিনী অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

উল্লেখ্য, গত ৪ অক্টোবর রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী মুন্না বাহিনী ও আনাস বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষে ২ জন নিহত এবং পরদিন আহতদের মধ্যে ১ জনের মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

এর জেরে এ দুই সন্ত্রাসী গ্রুপের সদস্যরা গত ৬ অক্টোবর আবারো সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে ৪ জন নিহত ও শতাধিক আহত হয়। এছাড়া গতকাল (বুধবার) বিকালে আরেক দফা সংঘর্ষের ঘটনায় আরো ১ জন নিহত হয়।

এনিয়ে গত এক সপ্তাহের সংঘর্ষের ঘটনায় স্থানীয় ২ ড্রাইভার এপর্যন্ত ৮ জন নিহত হল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রোহিঙ্গা

১১ নভেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন