Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

সেনাবাহিনীর তদন্ত প্রতিবেদন উপস্থাপন

বিশেষ সংবাদদাতা, কক্সবাজার | প্রকাশের সময় : ৯ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০০ এএম

টেকনাফে মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যাকাÐের সর্বশেষ তদন্ত প্রতিবেদন উপস্থাপন করেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। সেই প্রতিবেদন অনুযায়ী, গুলি করার পরও কিছুক্ষণ বেঁচে ছিলেন মেজর (অব.) সিনহা। টেকনাফ মডেল থানার বরখাস্ত হওয়া ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে অত্যন্ত নির্মম ও অমানবিকভাবে পা দিয়ে চেপে ধরে মাটিতে লুটিয়ে পড়া মেজর (অব.) সিনহার মৃত্যু নিশ্চিত করেন বলে তদন্ত রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়। সিনহাকে বহনকারী পিকআপ হাসপাতালে পৌঁছানোর পেছনেও দায়ী ব্যক্তিদের দুরভিসন্ধিমূলক অপচেষ্টা ছিল বলে প্রতীয়মান হয় বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। গত বুধবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এই প্রতিবেদন উপস্থান করা হয়। বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি মেজর জেনারেল (অব.) মোহাম্মদ সুবিদ আলী ভ‚ঁইয়া প্রতিবেদন উত্থাপনের বিষয়টি জানান। তিনি বলেন, মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যাকাÐের একটি প্রতিবেদন দিয়েছে সেনাবাহিনী। কমিটি এই হত্যাকাÐের বিচার দ্রæত শেষ করার তাগিদ দিয়েছে।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, গত ৩১ জুলাই আনুমানিক ৯টা ২৫ মিনিটে টেকনাফ থানার আওতাধীন মেরিন ড্রাইভ এলাকায় শামলাপুর পুলিশ চেকপোস্টে ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলীর গুলিতে মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খান নিহত হন। প্রাথমিক তথ্য বিবরণীতে জানা যায়, গত ৩ জুলাই ঢাকা হতে স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটির ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া বিভাগের ৩ জন শিক্ষার্থীসহ ‘জাস্ট গো’ নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলের জন্য ট্রাভেল ভিডিও তৈরির জন্য কক্সবাজার আসেন। এবং নীলিমা কটেজ নামক একটি রিসোর্টে অবস্থান করে একমাস ধরে কক্সবাজারের বিভিন্ন স্থানে শুটিং করেন তারা।

গত ৩১ জুলাই রাতে শুটিং শেষে সিনহা মো. রাশেদ খান সঙ্গী সাহেজুল ইসলাম সিফাতকে নিয়ে মারিশবনিয়া পাহাড় থেকে নেমে প্রাইভেটকারে মেরিন ড্রাইভ দিয়ে কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে রওনা করেন। পথিমধ্যে শামলাপুরের আগে বিজিবি চেকপোস্টে তাদেরকে তল্লাশি করার জন্য থামানো হয় এবং পরিচয় নেয়ার পর ছেড়ে দেয়া হয়। রাত ৯টা ২৫ মিনিটে শমলাপুর পুলিশ চেকপোস্ট অতিক্রমের সময় ইন্সপেক্টর লিয়াকত এপিবিএনের ফোর্সসহ সিনহা মো. রাশেদ খানের গাড়ি থামায়। সিনহা মো. রাশেদ খান গাড়ি থামিয়ে তাদেরকে পরিচয় দিলে এপিবিএন সদস্যরা প্রথমে তাদেরকে যাওয়ার জন্য সঙ্কেত দিলেও ইন্সপেক্টর লিয়াকত তাদের পুনরায় থামান এবং তাদের দিকে পিস্তল লক্ষ্য করে গাড়ি থেকে নামতে বলেন।

সিফাত হাত উঁচু করে গাড়ি থেকে নেমে পেছনের দিকে আসেন। মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খান গাড়ি থেকে হাত উঁচু করে নামার পরপরই ইন্সপেক্টর লিয়াকত খুব কাছ থেকে তাকে লক্ষ্য করে গুলি করেন। ঘটনার আনুমানিক ২০-২৫ মিনিট পর টেকনাফ থানার ওসি (বরখাস্ত) প্রদীপ কুমার দাশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে অত্যন্ত নির্মম ও অমানবিকভাবে পা দিয়ে গলা চেপে ধরে মাটিতে লুটিয়ে পড়া মেজর (অব.) সিনহার মৃত্যু নিশ্চিত করেন।

তদন্ত কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ সুবিদ আলী ভ‚ঁইয়ার সভাপতিত্বে বৈঠকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের কমিটি সদস্য মুহাম্মদ ফারুক খান, মো. ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লাহ, মো. মোতাহার হোসেন, মো. নাসির উদ্দিন, মো. মহিববুর রহমান এবং বেগম নাহিদ ইজাহার খান অংশ নেন। এছাড়া বৈঠকে প্রতিরক্ষা সচিবসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা, সেনাবাহিনী, বিমানবাহিনী ও নৌবাহিনী, আবহাওয়া অধিদফতর ও জরিপ অধিদফতরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এবং সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

 

 



 

Show all comments
  • Aslam Khan ৯ অক্টোবর, ২০২০, ৪:০৮ এএম says : 0
    কি লাভ যেই অবস্থা দেখতেছি মনে হয় সিনহা হত্যার বিচার পাবেনা
    Total Reply(0) Reply
  • Ahad Talukder ৯ অক্টোবর, ২০২০, ৪:০৯ এএম says : 0
    তদন্ত রিপোর্টের ও এখন বিশ্লষন হবে বাহহহহ..!
    Total Reply(0) Reply
  • Iqbal Hossain ৯ অক্টোবর, ২০২০, ৪:০৯ এএম says : 0
    Fasi jano hoy
    Total Reply(0) Reply
  • Rayhan Uddin ৯ অক্টোবর, ২০২০, ৭:০৯ এএম says : 0
    শেষ পর্যন্ত সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ডের মতো মেজর সিনহার বিষয়টি এমনই হবে, বিচার কার্যক্রম স্থবির হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Chamely Rahman ৯ অক্টোবর, ২০২০, ৭:০৯ এএম says : 0
    আইনের মার প্যাচ প্রদীপরা ভালো জানে।বিচার হবে? বোধহয় না।টাকার কাছে সব ম্লান।কিনে ফেলেছে সিফাত শিপ্রা কে।
    Total Reply(0) Reply
  • Hafej Oliullah ৯ অক্টোবর, ২০২০, ৭:১০ এএম says : 0
    ফেনীর সোনাগাজীর নুসরাত হত্যাকারী ১৬ জনের ফাসীর রায় দিয়েছিল আদালত। কই একজনের ও ত ফাসী দিতে দেখলাম না এরকম আরও অনেক ঘটনা আছে যা বলে শেষ করা যাবে না
    Total Reply(0) Reply
  • Masfiqur Rahman Uzzal ৯ অক্টোবর, ২০২০, ৭:১০ এএম says : 0
    নিশ্চই মহান আল্লাহ্ উত্তম পরিকল্পনাকারী।
    Total Reply(0) Reply
  • Slima Munia ৯ অক্টোবর, ২০২০, ৭:১১ এএম says : 0
    মানুষের বিবেকের কতটুকু অধঃপতন হলে পর নির্যাতিত ব্যক্তিকে পানির পরিবর্তে চেইন খুলে প্রস্রাব পান করতে দেয়! ওসি প্রদীপ এমনই এক চরিত্রের ব্যক্তি।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সিনহা


আরও
আরও পড়ুন