Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৪ মাঘ ১৪২৭, ১৪ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

বাফুফের সংকেত পেলেই ঢাকায় আসবেন জেমি

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৯ অক্টোবর, ২০২০, ৮:০৪ পিএম

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) বহুল আলোচিত নির্বাচন শেষ হয়েছে এক সপ্তাহ আগে। বিপুল ভোটে জিতে টানা চারবারের মতো সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন কাজী মো. সালাউদ্দিন। রোববারই বাফুফের নতুন নির্বাচিত কমিটির দায়িত্ব বুঝে নেয়ার কথা। ইতোমধ্যে আভাস পাওয়া গেছে সময় নষ্ট না করে এই মেয়াদের শুরু থেকেই দেশের ফুটবল উন্নয়নে কাজে ঝাপিয়ে পড়বে কাজী সালাউদ্দিন নেতৃত্বাধীন বাফুফের নতুন নির্বাচিত কমিটি। এ ধারাবাহিকতায় তারা জাতীয় দল থেকে শুরু করে সব বয়সভিত্তিক দল এবং জেলা ও বিভাগের ফুটবল নিয়ে কাজ করবে। নারী ফুটবলকেও দেয়া হবে প্রাধান্য।

জাতীয় দলের ব্রিটিশ কোচ জেমি ডে বর্তমানে লন্ডনে অবস্থান করলেও তিনি বাফুফের সংকেতের অপেক্ষায় আছেন। দেশের ফুটবলের অভিভাবক সংস্থাটি সবুজ সংকেত দিলে জেমি ঢাকায় আসবেন বলে জানিয়েছেন। কবে ঢাকায় আসছেন? এমন প্রশ্নে লন্ডন থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জেমি ডে বলেন, ‘খুব তাড়াতাড়ি আমি বাফুফের সঙ্গে পরবর্তী পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করবো। আমাদের ইচ্ছা ছিল নভেম্বরের ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেললে তার আগে এক দেড় সপ্তাহ অনুশীলন করানো। তারপর ফ্রেন্ডলি ম্যাচ দিয়ে খেলোয়াড়দের পরীক্ষা করা। বুঝতে পারছি না সেটা সম্ভব হবে কি না। আমার কাছে কঠিনই মনে হচ্ছে। শেষ পর্যন্ত এ বছর কোনো ম্যাচ খেলতে না পারলে ২০২১ সালের পরিকল্পনাই সাজাতে হবে। আমার ঢাকায় ফেরার সময়টা বাফুফের পরিকল্পনার ওপর নির্ভর করছে। ওদের সংকেত পেলেই ঢাকায় আসবো।’

চলতি বছর কোনো আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট না থাকায় নভেম্বরে ফিফা ফ্রেন্ডলি উইন্ডোতে দু’টি প্রীতি ম্যাচ খেলার পরিকল্পনা আগেই করেছিল বাফুফে। তবে সেটা দক্ষিণ এশিয়ার কোনো দেশের বিপক্ষেই। কারণ, করোনাভাইরাসের কারণে আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের যে বিধিনিষেধ ছিল সেটা এখনো পুরোপুরি শেষ হয়নি। তাই কারণে দুরের কোনো দেশকে আনা বা কোনো দেশে গিয়ে খেলা এ মুহূর্তে সম্ভব নয়।

৯ থেকে ১৭ নভেম্বর ফিফা ফ্রেন্ডলির উইন্ডো। এই সময়ের মধ্যে কোনো দেশ চাইলে সর্বোচ্চ দু’টি ম্যাচ খেলতে পারবে। বাংলাদেশ এই ম্যাচ দু’টির জন্য শ্রীলঙ্কা ও নেপালের সঙ্গে প্রাথমিক আলোচনা করে রাখলেও কারা শেষ পর্যন্ত খেলতে রাজী হবে তা জানতে আরো কয়েকদিন অপেক্ষা করতে হবে। কারণ, নির্বাচনের কারণে ম্যাচ নিয়ে বেশি আলোচনার সুযোগ পায়নি বাফুফে। ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচ নিয়ে বাফুফের সাধারণ সম্পাদক মো. আবু নাইম সোহাগ শুক্রবার বলেন, ‘নভেম্বরে শ্রীলঙ্কা ফুটবল ফেডারেশনের নির্বাচন। তারা ওই সময় দল পাঠাতে পারবে কিনা জানি না। আর নেপাল এসে খেলতে চায় না। ওখানে আমরা গেলে নেপাল রাজী হতে পারে। রোববারের পর ফ্রেন্ডলি ম্যাচ নিয়ে আবার আলোচনা শুরু করবো।’ এদিকে কোচ জেমি ডে এবছর ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলার সম্ভাবনা কম দেখছেন। কারণ, এখনো আন্তর্জাতিক ফ্লাইট সিডিউল স্বাভাবিক হয়নি এবং ফুটবলাররাও সাত মাস ধরে খেলার মধ্যে নেই। এ প্রসঙ্গে জেমি বলেন, ‘আমাদের ৭০ ভাগ খেলোয়াড় প্রায় আট মাস ধরে খেলার মধ্যে নেই। তাছাড়া ভ্রমনও একটা সমস্যা। তাই আমার মনে হয় না এবছর কোনো ম্যাচ খেলা সম্ভব হবে।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন