Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৬ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

প্রশান্ত মহাসাগরে ভাসছে শত শত সামুদ্রিক প্রাণীর মৃতদেহ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ অক্টোবর, ২০২০, ৪:২৫ পিএম

রাশিয়ায় প্রশান্ত মহাসাগরের আভাচা উপসাগরে বড় প্রাকৃতিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। গত কয়েকদিন ধরেই সমুদ্র তীরবর্তী উপকূলে ধেয়ে আসছে রাশি রাশি সামুদ্রিক প্রাণীর মৃতদেহ। অবস্থা এমন যে, আশঙ্কা করা হচ্ছে আভাচা উপসাগরের ৯৫ শতাংশ প্রাণীর মৃত্যু হয়েছে। এই বিপর্যয়কে রাশিয়ার সামুদ্রিক ইতিহাসের এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় ট্রাজেডি হিসেবে গণ্য করা হচ্ছে। তবে কেন এত পরিমাণে সামুদ্রিক প্রাণী মারা যাচ্ছে, তার কোনো কারণ এখনো জানা যায়নি।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে, সমুদ্র সৈকতে ভেসে এসেছে অক্টোপাস, সীল, কাঁকড়া, মাছ সহ অনেক প্রাণীর মৃতদেহ। এইসব ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরালও হচ্ছে। বীভৎসতা দেখে আঁতকে উঠেছেন প্রকৃতিপ্রেমীরা। তারা দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি তুলেছেন।
দ্য মস্কো টাইমসের একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, কিছু বিজ্ঞানী সামুদ্রিক জীবের মৃত্যুর জন্য দূষণকে দায়ী করেছেন। আবার কিছু বিজ্ঞানীরা সমুদ্রের অভ্যন্তরে আগ্নেয়গিরির বিস্ফোরণের সম্ভাবনাকেও উড়িয়ে দেননি। তবে এরইমধ্যে ঘটনার তদন্তের জন্য একটি বিশেষ কমিশন গঠন করা হয়েছে।
প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, এই বিপর্যয়ের জেরে শুধু মানুষ না কিছু মানুষের জীবনযাত্রার ওপরেও প্রভাব পড়েছে। স্থানীয় মৎস্যজীবী ও সার্ফাররা জানিয়েছেন, জলে রয়েছে কীটনাশকের গন্ধ। একই সঙ্গে সার্ফিং করা কিছু লোক বমি বমি ভাব, গলায় ব্যথা এবং চোখে জ্বালার কথাও জানিয়েছেন।
সেখানকার জল পরীক্ষার পর জলে পেট্রোলিয়াম জাতীয় পদার্থ থাকার প্রমাণ মিলেছে। স্থানীয়রা জানাচ্ছেন, বিগত কয়েকদিন ধরেই সৈকতে ভেসে আসছে মরা সীল, অক্টোপাস এবং সমুদ্রের মাছ। তারা জানাচ্ছেন, এ ধরনের ঘটনা আগে কখনো এখানে হয়নি।



 

Show all comments
  • ABU ABDULLAH ১০ অক্টোবর, ২০২০, ৭:০১ পিএম says : 0
    "সেখানকার জল পরীক্ষার পর জলে পেট্রোলিয়াম জাতীয় পদার্থ থাকার প্রমাণ মিলেছে" ইনকিলাবে ও যদি "জল" লিখা হয় তাহলে কোথায় যাব কোন পত্রিকা পড়বো লিখতে হবে "পানি"
    Total Reply(0) Reply
  • ...mujib ১০ অক্টোবর, ২০২০, ১০:১৪ পিএম says : 0
    You are replacing the word Paani with Jol. Muslims use the word paani throughout the indian subcontinent. ....
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ