Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

যুদ্ধবিরতি সত্ত্বেও নাগরনো-কারাবাখে গোলাবর্ষণের অভিযোগ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ অক্টোবর, ২০২০, ১২:২২ পিএম

সমঝোতার মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে নাগারনো-কারাবাখ অঞ্চলে আবারও সংঘর্ষে জড়িয়েছে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান। দুই পক্ষই একে অপরের প্রতি সমঝোতার শর্ত লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলেছে। ফলে দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে সত্যিকারে যুদ্ধবিরতি কার্যকর হওয়া নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শী এবং আর্মেনিয়ার সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে এমনটি জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।
গতকাল শনিবার আজারবাইজানের ভাইস-প্রেসিডেন্ট হ্যাকিয়েভ হ্যাকিয়েভ অভিযোগ করে বলেন, আর্মেনিয়া সাময়িক যুদ্ধবিরতি মেনে চলেনি। এই হামলা থেকে স্পষ্ট বোঝা যায় যে, তারা বিষয়টি নিয়ে নিজেদের স্বার্থে রাজনীতি করছে।
যুদ্ধবিরতি ঘোষণার পর এক বিবৃতিতে আজারবাইজানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আর্মেনিয়ান সেনাবাহিনী আগডেরে-টেরটার এবং ফুজুলি-সেব্রিল এলাকাকে টার্গেট করে আবারও হামলা চালানোর চেষ্টা করেছিল। বেশ কয়েকটি বেসামরিক বসতি তাদের দ্বারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
গত ২৭ সেপ্টেম্বর বিবাদপূর্ণ নাগোরনো-কারাবাখের মালিকানা ঘিরে প্রতিবেশী দুই দেশে আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার সামরিক বাহিনীর মধ্যে সংঘাত শুরু হয়। ১৯৯০ এর দশকের পর এই অঞ্চলে এত বড় সংঘাত আর দেখা যায়নি। গত দুই সপ্তাহে এ সংঘর্ষে প্রাণ হারিয়েছেন প্রায় ৩০০ জন। উভয়পক্ষের গোলা, রকেট ও ড্রোন হামলায় নিখোঁজ রয়েছেন আরও অনেকে। এ সহিংসতার জন্য উভয় পক্ষই একে অপরকে দায়ী করেছে।
যুদ্ধ বন্ধে জাতিসংঘসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ অনুরোধ জানালেও তাতে রাজি হচ্ছিল না আর্মেনিয়া-আজারবাইজান কর্তৃপক্ষ। পরে গত বৃহস্পতিবার মস্কোয় টানা ১০ ঘণ্টার আলোচনা শেষে যুদ্ধবিরতির সিদ্ধান্তে পৌঁছায় আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান কর্তৃপক্ষ।
কিন্তু যুদ্ধবিরতি কার্যকর হওয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যেই দুই পক্ষ শর্ত লঙ্ঘনের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ তুলেছে।
আর্মেনীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, আজারবাইজান আর্মেনিয়ার মধ্যে একটি স্থাপনায় বোমা হামলা করেছে। তাদের দাবি, যুদ্ধবিরতি কার্যকর হওয়ার পাঁচ মিনিটের মাথায় আজারি বাহিনী আবারও সহিংস পদক্ষেপ শুরু করেছিল। বিপরীতে আজারবাইজান দাবি করেছে, শত্রুপক্ষই শর্ত ভেঙে তাদের এলাকায় হামলা চালিয়েছে। সূত্র : বিবিসি



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আর্মেনিয়া-আজারবাইজান


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ