Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

এবার জেলার ফুটবল সালাউদ্দিনের হাতে

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ অক্টোবর, ২০২০, ৮:১৯ পিএম

বহুল আলোচিত নির্বাচন শেষে দায়িত্ব গ্রহণ করল বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) নতুন নির্বাচিত কমিটি। রোববার বিকেলে মতিঝিলস্থ বাফুফে ভবনে নব-নির্বাচিত কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়। এই সভায় ১৯টি স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান মনোনীত করা হয়েছে। এগুলো হলো- ইমার্জেন্সি কমিটি, পেশাদার লিগ কমিটি, ন্যাশনাল টিমস কমিটি, ফাইন্যান্স কমিটি, ঢাকা মেট্রোপলিটন ফুটবল লিগ কমিটি, ডেভেলপমেন্ট কমিটি, টেকনিক্যাল কমিটি, কম্পিটিশন কমিটি, কমিটি ফর ওমেন্স ফুটবল, রেফারিজ কমিটি, লিগ্যাল কমিটি, ইন্টারনাল অডিট কমিটি, ফুটসাল অ্যান্ড বিচ সকার কমিটি, জাতীয় স্কুল ফুটবল কমিটি, ইথিক্স অ্যান্ড ফেয়ার প্লে কমিটি, প্লেয়ার স্ট্যাটাস কমিটি, ডিসিপ্লিনারি কমিটি, আপিল কমিটি ও জেলা ফুটবল লিগ কমিটি।

বাফুফের চারবারের সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন এবার নিজ কাঁধে তুলে নিলেন জেলা ফুটবলের দায়িত্ব। জেলা ফুটবল লিগ কমিটির চেয়ারম্যানের পদ স্বেচ্ছায় নিলেন তিনি। মূলত জেলার ফুটবলকে সচল করতেই সালাউদ্দিন এ দায়িত্ব নিলেন। এর আগে তিনি ডেভেলপমেন্ট কমিটির দায়িত্বে ছিলেন। পাশাপাশি এবার ইমার্জেন্সি কমিটির চেয়ারম্যানের দায়িত্বও পালন করবেন কাজী মো. সালাউদ্দিন।

সভা শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখী হয়ে সালাউদ্দিন বলেন, ‘আমিই জেলা ফুটবলের দায়িত্ব নিলাম। আমি শুনি জেলায় লিগ হয় না অনেক দিন এ কথা বারবার শুনেছি আমি। এবার নিজেই ওটা দেখবো, যাতে ওই গ্যাপটা পূরণ করতে কারো উপর ভরসা করতে না হয়।’ তিনি যোগ করেন, ‘আজকে (গতকাল) আমাদের খুবই ভালো সভা হয়েছে। সবার মধ্যে আন্তরিকতা ছিল। সবাই ফুটবলে কাজ করতে এসেছে। নতুন-পুরাতন সবাই কাজের জন্য প্রস্তুত। আমরা কিছু কমিটির চেয়ারম্যান ঠিক করে দিয়েছি। কারণ, আমাদের খুব তাড়াতাড়ি কাজ শুরু করতে হবে।’

বাফুফের নতুন নির্বাচিত কমিটির প্রথম সভায় ২০ জনের মধ্যে ১৮ জন উপস্থিত ছিলেন। অসুস্থ্য থাকার কারণে উপস্থিত থাকতে পারেননি সদস্য হারুনুর রশীদ ও মাহিউদ্দিন আহমেদ সেলিম। সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী স্ট্যান্ডিং কমিটিগুলোর মধ্যে পেশাদার লিগ কমিটির প্রধান হিসেবে সিনিয়র সহ-সভাপতি আবদুস সালাম মুর্শেদীকে এবং লিগ্যাল ও ন্যাশনাল টিমস কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে সহ-সভাপতি কাজী নাবিল আহমেদই রয়েছেন। আগের কমিটিতেও তারা এই কমিটির দায়িত্ব পালন করেছিলেন। তবে ডেভেলপমেন্ট কমিটিতে নতুন নির্বাচিত সহ-সভাপতি আতাউর রহমান ভূঁইয়া মানিককে এবং ঢাকা মহানগরী ফুটবল লিগ কমিটিতে চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে আরেক নবনির্বাচিত সহ-সভাপতি ইমরুল হাসানকে। টেকনিক্যাল কমিটির চেয়ারম্যান পদটি ফাকা রাখা হয়েছে আরেক সহ-সভাপতির জন্য। যিনি ৩১ অক্টোবর নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে আসবেন। ওই দিন ৬৫ ভোট পাওয়া মহিউদ্দিন আহমেদ মহি ও তাবিথ আউয়ালের মধ্যে পুন:নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

সদস্য হারুনুর রশিদকে ইন্টারনাল অডিট কমিটি, বিজন বড়–য়াকে জাতীয় স্কুল ফুটবল কমিটি, সত্যজিৎ দাস রুপুকে ফুটসাল অ্যান্ড বিচ সকার কমিটি, জাকির হোসেন চৌধুরীকে রেফারিজ কমিটি এবং মহিলা উইংয়ের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে মাহফুজা আক্তার কিরণকে। এছাড়া ইথিক্স অ্যান্ড ফেয়ার প্লে কমিটিতে আজমালুল হোসেন কিউসি, প্লেয়ার স্ট্যাটাস কমিটিতে আখতার হোসেন খান, ডিসিপ্লিনারী কমিটিতে মেজবাহ উদ্দিন এবং আপিল কমিটিতে আবদুল মুয়ীদ চৌধুরীকে চেয়ারম্যান করা হয়েছে। তবে ১৯ স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান পদে সদ্য সামাপ্ত নির্বাচনে কাজী সালাউদ্দিনের সম্মিলিত পরিষদের প্রতিপক্ষ সমন্বয় পরিষদ থেকে নির্বাচিত ছয় সদস্যের কেউই জায়গা পাননি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ