Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

চীনের হস্তক্ষেপেই ফিরবে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা

ফারুক আবদুল্লাহ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০৩ এএম

চীন হস্তক্ষেপ করলেই অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীর বিশেষ মর্যাদা ফিরে পাবে বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লা। গতকাল সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদের বিলোপ নিয়ে কথা বলতে গিয়ে এই মন্তব্য করেন তিনি। তার মতে, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা (এলএসি)-য় ভারতের সঙ্গে চীনের সীমান্ত সঙ্ঘাতের একমাত্র কারণই হল জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদার বিলোপ। তার এই মন্তব্য নিয়ে ভারতের রাজনৈতিক মহলে তোলপাড় শুরু হয়েছে।

একটি টেলিভিশন চ্যানেলকে দেয়া একটি সাক্ষাৎকারে ফারুক আবদুল্লা দাবি করেন, চীন কখনই সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদের বিলোপ মেনে নেয়নি। এর পর আরও এক ধাপ এগিয়ে তিনি বলেন, ‘এলএসি-তে চীন যা করছে তা সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপের জন্যই। আমার আশা চীনের হস্তক্ষেপেই ওই বিশেষ মর্যাদা পুনর্বহাল হবে।’ তার মতে, ‘২০১৯ সালের ৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলোপ করে যে পদক্ষেপ করা হয়েছে, তা কখনই মেনে নেয়া যায় না।’ এই সূত্র ধরেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিশানা করে তিনি বলেন, ‘আমি চীনা প্রেসিডেন্টকে কখনও আমন্ত্রণ জানাইনি। মোদি শুধু আমন্ত্রণই জানাননি, তাকে চেন্নাই নিয়ে গিয়েছিলেন এবং তার সঙ্গে খাওয়াদাওয়াও করেছেন।’

গত বছরের ৫ আগস্ট অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা এমনকি, পূর্ণ রাজ্যের স্বীকৃতি বাতিল করেছিল মোদি সরকার। এর পরেই ফারুক আবদুল্লা এবং তার ছেলে, সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাকে জন নিরাপত্তা আইনে গৃহবন্দী করা হয়। প্রায় সাত মাস বন্দি থাকার পর গত মার্চে মুক্তি পান তিনি। সূত্র : এবিপি।



 

Show all comments
  • Nazmul Islam ১২ অক্টোবর, ২০২০, ৩:৪৭ এএম says : 0
    যে জাতি স্বাধীনতা না চেয়ে বিশেষ মর্যাদা চায়, তাদের অবস্তা এর চেয়ে ভালো হয় কিভাবে।। এই মর্যাদা র লোভে এরা ১৯৪৭ সালে ভারতের সাথে যোগ দেয়, তাই কাশ্মীরের এই অবস্থার জন্য কাশ্মীরের নেতারাই দায়ী।
    Total Reply(0) Reply
  • Shafi Sadi ১২ অক্টোবর, ২০২০, ৩:৪৮ এএম says : 0
    চিনকে চোকে দেখছে অথচ সেই চিনই আমাদের মুসলমানদের কে ধ্বংস করার জন্য তার দেশে কমিউনিষ্ট চালু করেছে । কাফির মুশরিকরা সুরে বন্ধু আর কাজে শত্রু এটা শতাব্দী থেকেই।
    Total Reply(0) Reply
  • Kazisarwarul Islam ১২ অক্টোবর, ২০২০, ৩:৪৯ এএম says : 0
    স্বাধীনতা কেহ উপহার দেয় না!
    Total Reply(0) Reply
  • Iqram Hossain ১২ অক্টোবর, ২০২০, ৩:৪৯ এএম says : 0
    কখনো অমুসলিম হাতে মুসলিমেরা নিরাপদ হতে পারে না
    Total Reply(0) Reply
  • Ruksana Akter ১২ অক্টোবর, ২০২০, ৩:৪৯ এএম says : 0
    চীন নিজেরাই তো উইঘুর মুসলিমদের সাথে অন্যায়ভাবে নিপীড়ন করছে
    Total Reply(0) Reply
  • নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ১২ অক্টোবর, ২০২০, ৩:৫০ এএম says : 0
    আপনাদের মোনাফেকির কারণেই কাশ্মীরের মুসলমানরা আজ নিপীড়নের শিকার।
    Total Reply(0) Reply
  • afsar ১২ অক্টোবর, ২০২০, ১০:০৮ এএম says : 0
    চিন যে বিশ্বাস যোগ্য নয় তা উইঘুর , তাইওয়ান , হং কোং, তিব্বত বাসি দের দেখলে বোঝা যায় .... পাকিস্তান ও চীন এর এক বিশাল ঋণ এর জাল এ জড়িয়ে আছে .... সুতরাং সাধু সাবধান !!!!!!!!!!!!!!!!!
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চীন

২ ডিসেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ