Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

কারাবাখ অঞ্চলে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন নিয়ে রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনা তুরস্কের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ অক্টোবর, ২০২০, ১২:১৪ পিএম

কারাবাখ অঞ্চলে আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার মধ্যকার যুদ্ধবিরতি কার্যকরের কয়েক মিনিটের মাথায় ওই সমঝোতা লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছে। আজারবাইজানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দেশটির গানজা শহরে শনিবার রাতে বেসামরিক এলাকায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে আর্মেনিয়া। এতে অন্তত সাত আজেরি নিহত হয়েছে। দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধবিরতি কার্যকর হওয়ার ২৪ ঘণ্টারও কম সময়ের মধ্যে আর্মেনিয়ার এ হামলার নিন্দা জানিয়েছে তুরস্ক। একইসঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আর্মেনিয়ার মিত্র রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনা করেছে আঙ্কারা। কূটনৈতিক সূত্রের বরাত দিয়ে গতকাল রবিবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে তুর্কি সংবাদমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, রবিবার এক ফোনালাপে এ বিষয়ে কথা বলেন তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু এবং রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ। ফোনালাপে যুদ্ধবিরতি মেনে চলার ব্যাপারে আর্মেনিয়াকে সতর্ক করতে রাশিয়ার প্রতি আহ্বান জানান তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী।
শুক্রবার মস্কোয় রাশিয়া, আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের মধ্যে ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে ওই যুদ্ধবিরতির বিষয়ে একমত হয় সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলো। সমঝোতার পরদিনই আর্মেনিয়ার এমন হামলার বিষয়ে মিত্র আজারবাইজানের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে আঙ্কারা। সামগ্রিক পরিস্থিতি নিয়ে আজেরি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী।
রবিবার (১১ অক্টোবর) টুইটার পোস্টে আজারবাইজানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় লিখেছে, ‘আর্মেনীয় বাহিনী রাতে নতুন করে গানজার আবাসিক এলাকায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে। এতে সাতজন নিহত ও ৩৩ জন আহত হয়েছে। হতাহতদের মধ্যে শিশুও রয়েছে।’ এরপরই আর্মেনিয়ার এমন হামলার নিন্দায় সরব হয় তুরস্ক।
এদিকে আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার মধ্যকার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ জানিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। রাশিয়ার মধ্যস্থতায় দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধবিরতি কার্যকরের কয়েক মিনিটের মাথায় ওই সমঝোতা লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠে। এজন্য দুই দেশই পরস্পরকে দায়ী করেছে।
অন্যদিকে আর্মেনিয়াও আজারবাইজানের বিরুদ্ধে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের অভিযোগ এনেছে। তবে আজেরি হামলায় হতাহতের কোনও সুস্পষ্ট পরিসংখ্যান হাজির করতে পারেনি দেশটি।
ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ক প্রধান জোসেফ বোরেল এক বিবৃতিতে বলেছেন, আমরা বেসামরিক লক্ষ্যবস্তুতে হামলা ও হতাহতের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুদ্ধবিরতি


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ