Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১১ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

নাইজেরিয়া পুলিশের বিশেষ বাহিনী বিলুপ্ত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০৩ এএম

বিক্ষোভের মুখে ভেঙে দেয়া হলো নাইজেরিয়া পুলিশের বিশেষ বাহিনী। দেশটির প্রেসিডেন্ট ফেডারেল স্পেশাল অ্যান্টি-রবারি স্কোয়াড (এফসার্স) অবিলম্বে বাতিল করতে বিশেষ নির্দেশ দিয়েছেন। নাইজেরিয়া পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) মুহামেদ আদামু এক বিবৃতিতে বলেছেন, সার্স এবং অন্য স্পেশাল এজেন্ট আর চাইলেই কোনো নাগরিককে যেখানে সেখানে থামিয়ে তল্লাশি করতে পারবে না। রোববারের বিবৃতিতে তিনি আরো বলেন, ফেডারেল স্পেশাল অ্যান্টি রবারি স্কোয়াড বা এফসার্স এবং অন্য কৌশলগত স্কোয়াডগুলোকে অবশ্যই রাস্তায় তল্লাশি চৌকি বসানো বা যথেচ্ছা তল্লাশি বন্ধ করতে হবে। এ নির্দেশনা এই মুহূর্ত থেকে কার্যকর হবে। বিবৃতিতে তিনি আরো যোগ করেন, পুলিশ কর্মকর্তারা আর সাদা পোশাকে কোনো অভিযানে অংশ নিতে পারবেন না। তাদের অবশ্য ইউনিফরম পরতে হবে অথবা অনুমোদিত ট্যাকটিক্যাল গিয়ার পরিধান করতে হবে। সোমবার বিবিসির খবরে জানা যায়, এক ব্যক্তিকে হত্যা করার ভিডিও ছড়িয়ে পড়ার পর পুলিশের বিশেষ বাহিনীর বিরুদ্ধে সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। এফসার্স স্কোয়াডের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে আটক, অত্যাচার ও বিচারবহির্ভুত হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে। প্রেসিডেন্টের কার্যালয় বলছে, এই বাহিনীর সদস্যের পুনর্নিয়োগ দেয়া হবে। স্কোয়াড পুনর্গঠনে নতুন ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। নাইজেরিয়ার পুলিশপ্রধান বলেছেন, সামাজিক সংগঠন ও মানবাধিকার দলের সমন্বয়ে তদন্তকারী দল গঠন করা হবে। এই তদন্তকারী দল সার্সের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নিয়ে তদন্ত করবে। নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুহাম্মাদু বুহারি এর আগে বলেছিলেন, তিনি পুলিশের সহিংসতা বন্ধ করতে চান। তিনি সংস্কার করতে চান এবং বিপথগামী কর্মকর্তাদের বিচার চান। বিক্ষোভকারীদের অন্যতম দাবি ছিল, বছরের পর বছর ধরে মানবাধিকার লঙ্ঘন ও অন্যায় করে যাওয়া স্কোয়াড বাতিল করা। তবে সার্স বাতিল করা হলেও উদ্বেগের একটি বিষয় রয়ে গেছে। বিতর্কিত পুলিশ বাহিনীর ইউনিটকেই পুনর্নিয়োগ দেয়া হবে। এতে নাইজেরীয় পুলিশ বাহিনীর মধ্যে সার্সের কর্মীরা ছড়িয়ে পড়বেন। এ নিয়ে উদ্বেগ রয়েছে। বিক্ষোভকারীরা বলছেন, বিক্ষোভ চলাকালে তাদের ওপর মারধর, ভয় দেখানোর ঘটনা ঘটেছে। আর এর বেশির ভাগই পুলিশ বাহিনী চালিয়েছে। শুধু সার্স নয়, সহিংসতার জন্য তারা নাইজেরিয়ার সব পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা চান। বিবিসি, আল-জাজিরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নাইজেরিয়া-পুলিশ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ