Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৭ আষাঢ় ১৪২৮, ০৯ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

রোহিঙ্গা নির্যাতনের প্রমাণসহ মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জাতিসংঘে অভিযোগ অ্যামনেস্টির

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ অক্টোবর, ২০২০, ৩:৪১ পিএম

রোহিঙ্গাদের উপর নির্যাতন করায় মিয়ারমারের বিরুদ্ধে এবার জাতিসংঘের দ্বারস্থ হল আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। মিয়ানমারের আরাকান প্রদেশে সাধারণ মানুষকে নির্বিচারে হত্যা করার জন্য যে সেখানকার সেনাবাহিনী দায়ী তার অনেক প্রমাণ খুঁজে পেয়েছে অ্যামনেস্টি। সোমবার সে সমস্ত প্রমাণের ছবি ও ভিডিওসহ একটি রিপোর্ট প্রকাশ করে আন্তর্জাতিক ওই মানবাধিকার সংগঠন। তারপরই জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদকে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেয়ার আবেদন করেছে তারা।

এ প্রসঙ্গে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের ডেপুটি রিজিওনাল ডিরেক্টর ফর ক্যাম্পেনিংস মিং ইউ হা বলেন, ‘বর্তমানে আরাকান বিদ্রোহীদের সঙ্গে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর সংঘর্ষের কোনও লক্ষণ চোখে পড়ছে না। তা সত্ত্বেও প্রচুর সাধারণ মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। আমার মনে বেসামারিক লোকজনই এই হত্যাকাণ্ড চালাচ্ছে। এর থেকে প্রমাণ হচ্ছে মিয়ানমারের সরকার আরাকনের মানুষদের কতটা অবহেলার চোখে দেখছে। এর ফলে সেখানে হিংসার ঘটনা বেড়েই চলেছে।’

অ্যামনেস্টির প্রতিবেদনে সম্প্রতি ঘটে যাওয়া দুটি ঘটনার উল্লেখ করা হয়েছে। তার মধ্যে গত ১৮ সেপ্টেম্বর ৪৪ বছরের এক চীনা মহিলা মিয়ানমারের সেনাঘাঁটির কাছে বাঁশ সংগ্রহ করতে গিয়ে ল্যান্ডমাইনে বিস্ফোরণে প্রাণ হারান। অন্যদিকে গত ৮ সেপ্টেম্বর রাখাইন প্রদেশের মাইবোন এলাকায় এক মহিলা ও তার মেয়েকে গুলি করে হত্যা করে মিয়ানমারের সেনা। মৃত মহিলার স্বামীর অভিযোগ, আচমকা তার স্ত্রী ও কন্যার উপর গুলি চালাতে শুরু করে সেনাকর্মীরা। ওই এলাকায় কোনও আরাকান বিদ্রোহী না থাকা সত্ত্বেও কাছের সেনাঘাঁটি থেকে আক্রমণ করা হচ্ছিল। সূত্র: দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রোহিঙ্গা গণহত্যা


আরও
আরও পড়ুন

কোয়েটায় এক মাদ্রাসাকে লক্ষ্য করে বোমা বিস্ফোরণ : এক পথচারী আহত

img_img-1624237625

পাকিস্তানের বেলুচিস্তানের কোয়েটায়  স্যাটেলাইট টাউনের একটি মাদ্রাসার কাছে আইইডি বিস্ফোরণে একজন আহত হয়েছেন। পুলিশ জানিয়েছে, অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিরা ইসহাকাবাদ এলাকায় একটি উন্নত বিস্ফোরক যন্ত্রসহ একটি মোটর মোটরসাইকেল পার্ক করে এবং রিমোট কন্ট্রোল দিয়ে আইইডিটির বিস্ফোরণ ঘটায়। -ডন (ইংরেজি)   ওই বিস্ফোরণে একজন পথচারী আহত হয়েছেন। আশেপাশের কয়েকটি দোকান এবং আশপাশের বিল্ডিংয়ের জানালা ভেঙে যায়। পুলিশ আহত ব্যক্তিকে সিভিল হাসপাতালে স্থানান্তরিত করেছে।"বিস্ফোরণের সম্ভাব্য লক্ষ্য ছিল মাদ্রাসা দারুল উলূম শরিয়া" বলে জানিয়েছে পুলিশ। পুলিশ ঘটনার তদন্ত চলছে বলেও