Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

সর্বহারা পরিচয়ে অগ্রণী ব্যাংক বানেশ্বর শাখায় ২০ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি

পুঠিয়া (রাজশাহী) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৩ অক্টোবর, ২০২০, ৫:৪৪ পিএম

সর্বহারা পরিচয়ে অগ্রণী ব্যাংক বানেশ্বর শাখার শাখা ব্যবস্থাপক হাতেম আলী ও দ্বিতীয় কর্মকর্তা শহিদুল ইসলামের কাছে ২০ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করা হয় বলে অগ্রণী ব্যাংক শাখা ব্যবস্থাপক ও দ্বিতীয় কর্মকর্তা জানিয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুর ১২টা ০৩ মিনিট ও ১২টা ০৪ মিনিটে দুইজন কর্মকর্তার ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরে কল দিয়ে এ চাঁদা দাবি করা হয়। পরে শাখা ব্যবস্থাপকের পক্ষে দ্বিতীয় কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম বাদি হয়ে পুঠিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। সাধারণ ডায়েরি সূত্রে জানাগেছে, মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) দুপুরে ০১৮৪২-৪০৮৫২৫ নম্বর হতে বিপ্লব সর্বহারা পরিচয়ে জনৈক ব্যক্তি ব্যাংকের ব্যাবস্থাপক ও দ্বিতীয় কর্মকর্তার ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরে ফোন দিয়ে তার বস মহিউদ্দিন শিকদার এর সাথে কথা বলতে বলেন। মহিউদ্দিন শিকদার বলেন, সে কয়েকটি খুন / ডাকাতি করে দীর্ঘকাল ভারতে লুকিয়ে ছিলেন। পরবর্তীতে বাংলাদেশে আসেন এবং ভারতে তাঁর কয়েকজন কর্মী চিকিৎসাধীন অবস্থায় থাকায় তাদেরকে বাঁচাতে ২০ লক্ষ টাকা প্রয়োজন। উক্ত টাকা না দিলে স্ত্রী সন্তানকে অপহরণ করে টুকরা টুকরা করে বানেশ্বর বাজারে ঝুলিয়ে রাকার হুমকি দেয়। মহিউদ্দিন শিকদার আরো বলে, এই কথা পুলিশ, র‌্যাবকে জানিয়ে কোন লাভ হবে না কারণ তাঁরা তাদেরকে কোন নিরাপত্তা দিতে পারবে না। এরপর যদি পুলিশ, র‌্যাবকে জানানো হয় তাহলে তাদেরকে খতম করে ফেলা হবে বলে হুমকি দেয়। এছড়াও সোনলী ব্যাংক পুঠিয়া শাখা, জনতা ব্যাংক পুঠিয়া শাখায় এধরনের হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে পুঠিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল ইসলাম জানান, বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে বলে এ কর্মকর্তা জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ