Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১১ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ভুল চিকিৎসায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগ হাসপাতাল ভাঙচুর

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৪ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০১ এএম

ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের নিউ ল্যাব এইড ডায়াগনস্টিক এন্ড হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত সোমবার রাত ১১টার দিকে রোগীর স্বজনরা বিক্ষুব্ধ হয়ে হাসপাতালটি ভাঙচুর চালায়। পরে পুলিশ উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
রোগীর স্বজন ও এলাকার জনপ্রতিনিধি জানান, গত তিনদিন আগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার দক্ষিণ পৈরতলা এলাকার মাকসুদা আক্তার নামে এক গৃহবধু ঠাÐা, জ্বর নিয়ে শহরের কুমারশীল মোড় এলাকায় নিউ ল্যাব এইড ডায়াগনস্টিক এন্ড হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর তিনি ওই হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. মাসুমা কাউসারের তত্ত¡াবধানে চিকিৎসাধীন ছিলেন। পরে কিছুটা সুস্থবোধ করায় গত রোববার রোগী মাকসুদাকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেন। তবে রোগীর শরীরে রক্ত শূন্যতা থাকায় ডা. সৈয়দা মাসুমা কাউসার রোগীকে এক ব্যাগ রক্ত দেয়ার জন্যে পরামর্শ দেন। এ অবস্থায় সোমবার রাতে রক্ত দেয়া অবস্থায় মৃত্যু হয় মাকসুদা আক্তারের।
এদিকে, মাকসুদা আক্তারে মৃত্যুর খবর পেয়ে স্বজনেরা রাতে হাসপাতালটিতে গিয়ে কর্মচারী ও নার্সদের উপর চড়াও হন। বিক্ষুব্ধরা হাসপাতালের চিকিৎসকের কক্ষ, কেবিনের দরজা ও অফিসকক্ষসহ অন্যান্য ইউনিটে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর চালান। হামলার সময় হাসপাতালের নার্স ও চিকিৎকেরা হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যায়।
রোগীর স্বজনদের অভিযোগ, ভুল চিকিৎসার কারণে রোগীর মৃত্যু হয়েছে। তারা এ ঘটনার বিচার দাবি করেন। ঘটনার খবর পেয়ে সদর মডেল থানার পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ওমর ফারুক জীবন বলেন, দক্ষিণ পৈরতলার মাকসুদা আক্তার নামে এক গৃহবধূ নিমোনিয়ার জ্বর নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। রক্তশূন্যতা থাকায় ডাক্তারের পরামর্শে রক্ত দিতে গেলে ভুল চিকিৎসার কারণে রক্ত দেয়ার সাথে সাথে তিনি মারা যান। আমরা এর বিচার দাবি করছি। সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আবদুর রহিম জানান, লিখিত অভিযোগ পাইনি। পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রোগী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ