Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ১০ কার্তিক ১৪২৭, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

মাথা ঘোরা রোগ মিনিয়ার্স ডিজিজ

| প্রকাশের সময় : ১৬ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০৭ এএম

মাথা ঘোরার অন্যতম কারণ মিনিয়ার্স ডিজিজ । এটি পরিচিত অসুখ। প্রায়ই পাওয়া যায় । যদিও মাথা ঘোরার আরও বেশ কিছু কারণ আছে। কানের তিনটি অংশ আছে। বহিঃকর্ণ , মধ্যকর্ণ এবং অন্তঃকর্ণ। মিনিয়ার্স ডিজিজে একদম ভেতরে অন্তঃকর্ণে সমস্যা হয়।এই রোগে আক্রান্ত হলে রোগী কিছুদিন ভাল থাকে। তারপর আবার লক্ষণ দেখা দেয়। এভাবেই চলতে থাকে। মিনিয়ার্স ডিজিজে একদিকের কানে সমস্যা হয়। ফ্রান্সের চিকিৎসক মিনিয়ার ১৮৬০ সালে এই রোগের কথা প্রথম বলেন।
মিনিয়ার্স ডিজিজে বিভিন্ন উপসর্গ থাকে। এর মধ্যে আছেঃ

১। হঠাৎ করে মাথা ঘোরা শুরু হয়
২। বমি ভাব বা বমি থাকে
৩। ভারসাম্যের সমস্যা হয়
৪। শ্রবণশক্তি সাময়িকভাবে কমে যায়
৫। নিস্টেগমাস থাকতে পারে। চোখ গোল বলের মতো । এর পাঁচ ভাগ থাকে ভেতরে আর এক ভাগ থাকে বাইরে। নিস্টেগমাসে
অক্ষি গোলকের অস্বাভাবিক সঞ্চালন হয়।
৬। মাথার ভেতর অস্বাভাবিক শব্দ হয় ।

মিনিয়ার্স ডিজিজ কেন হয় বিজ্ঞানীরা আজও সব কিছু বের করতে পারেননি । তবে অন্তঃ কর্ণের পানির পরিমাণ এই রোগে বেড়ে যায়। কানের সমস্যার সাথে রোগীর অন্যান্য সমস্যাও থাকে।

বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হয় এই রোগ নির্ণয়ের জন্য। ইলেক্ট্রককলিওগ্্রাফি পরীক্ষা করে কানের ভেতরের প্রেসার মাপা যায় । সিটি স্ক্যান এবং এমআরআই লাগে কখনো কখনো ।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ওষুধ দিয়েই চিকিৎসা করা হয়। খুব কম ক্ষেত্রেই সার্জারি লাগে। এই অসুখ একবার ভাল হয় একবার খারাপের দিকে যায় । এভাবেই চলতে থাকে। ধূমপান এবং লবণ এই রোগের উপসর্গ বাড়ায় । মিনিয়ার্স ডিজিজ হলে তাই লবণ কম খেতে হবে এবং ধূমপান ছাড়তে হবে।

ডাঃ মোঃ ফজলুল কবির পাভেল



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মিনিয়ার্স-ডিজিজ
আরও পড়ুন