Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি ২০২১, ০৭ মাঘ ১৪২৭, ০৭ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

বিশ্বনাথে চাচার হাতে ভাতিজি ধর্ষণ : চাচা গ্রেফতার

বিশ্বনাথ (সিলেট) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৭ অক্টোবর, ২০২০, ৩:০১ পিএম

এবার চাচার হাতে ভাতিজি ধর্ষণ হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে সিলেটের বিশ^নাথ পৌর এলাকার রামপাশা রোডস্থ আরামবাগ আবাসিক এলাকার আক্তার মিয়ার বাসার দ্বিতীয় তলায়। ধর্ষকের নাম আব্দুর রশিদ (৩৫)। সে সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ি (দক্ষিণপাড়া) গ্রামের মৃত মনফর আলীর ছেলে এবং নির্যাতিত তরুনী রমনা বেগম আব্দুর রশিদের আপন ভাতিজি হয়। এ ঘটনায় ধর্ষিতা রমনা বেগম বাদি হয়ে, শনিবার বিশ^নাথ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করে, (মামলা নং-১১, তারিখ ১৭/১০/২০২০ইং)। খবর পেয়ে পুলিশ বখাটে আব্দুর রশিদকে তার (ভাড়াটে) বাসা থেকে রাতেই গ্রেফতার করেছে।
জানা গেছে, ধর্ষিতা রমনা আক্তার একটি গবির পরিবারের মেয়ে। তার বাবা মারা যাওয়ার পর তার ফুফু মরিয়ম বেগম তাকে টেইলারি সেখানোর জন্য বিশ^নাথে নিয়ে আসেন। রমনার চাচা আব্দুর রশিদের স্ত্রী ডির্ভোস হওয়ার পর সেও বিশ^নাথে একই বাসায় থাকত। সেই সুবাদে রমনার সাথে আব্দুর রশিদের গড়ে উঠে অবৈধ সম্পর্ক। এক পর্যায়ে (১৬ অক্টোবর) রাতে আব্দুর রশিদ তার ভাতিজি রমনা বেগমের সাথে কথা আছে বলে তার রুমে ডেকে নিয়ে যায়। দীর্ঘক্ষণ রুম থেকে বের না হওয়ায় ফুফু মরিয়ম বেগমের সন্দেহ হয়। তিনি আব্দুর রশিদের দরজা খুলতে ডাক দিলে মেয়েটি বিবস্ত্র অবস্থায় দরজা খুলে ফুফু মরিয়ম বেগমকে বিস্তারিত খুলে বলে। পরে তারা বিষয়টি থানা পুলিশকে জানালে পুলিশ রাতেই তাকে গ্রেফতার করে।
এ ব্যাপারে থানার ওসি শামিম মুসা ইনকিলাবকে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত আসামিকে গ্রেফতার করে এবং রোববার তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাটানো হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চাচা
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ